খানসামায় বৃষ্টির আশায় দিনাজপুরে ব্যাঙের বিয়েদিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরে ব্যাঙের বিয়ে দেয়া হয়েছে। সকলের মনের বিশ্বাস ব্যাঙের বিয়ে দিলেই অনাবৃর্ষ্টি কেটে যাবে। ব্যাঙের বিয়ে, সেটাও আবার মহাধুমধামে। হিন্দুরীতি অনুসারে বিয়ের জন্য ছায়ামন্ডপ, পুস্পমাল্য, গায়ে হলুদ, আর্শিবাদের ধান-দূর্বা, খাওয়ার আয়োজন সব ধরনের ব্যবস্থাই ছিল বিয়েতে। শুধু তাই নয়, বিয়েতে আমন্ত্রিতরা ব্যাঙ দম্পত্তিকে দিয়েছেন নগদ অর্থসহ বিভিন্ন উপহার সামগ্রী।

অভিনব এই ব্যাঙের বিয়ে অনুষ্ঠিত হয় দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার ভাবকী ইউনিয়নের কাচিনীয়া বাজারের ঝাড়–য়াপাড়ায়। বিয়েতে দুই শতাধিক মানুষ এ অনুষ্ঠানে আসে।

আয়োজকরা জানায়, খরা থেকে মুক্তি পেতে এবং বৃষ্টির আশায় তাদের এই আয়োজন। অনাবৃষ্টির কবলে পড়লে তারা বৃষ্টির জন্য ব্যাঙের বিয়ে দিয়ে থাকেন। আর এই রীতি শতবর্ষ আগে থেকেই চলে আসছে।

তাদের মতে, হিন্দুদের ধর্মগ্রন্থ রামায়ণে বর্ণিত বৃষ্টির দেবতাকে খুশি করার জন্য সেই সময়ে ব্যাঙের বিয়ের প্রচলন ছিল। সেই ধারা অনুসারে ব্যাঙের বিয়ের আয়োজন করে ওই এলাকার বাসিন্দারা।

ব্যাঙের বিয়ে অনুষ্ঠানে কলার গাছ ও ফুল দিয়ে সাজানো মাড়োয়ায় গ্রামবাসী জড়ো হয়। বর পক্ষের রাজেন্দ্রনাথ রায় ও কনে পক্ষের নিপুন রায় বর কনেকে নিয়ে হাজির হয় মাড়োয়ায়।

এ ব্যাপারে নিপুন রায় জানান, অতীতেও এ ভাবে ব্যাঙের বিয়ে দেয়া হয়েছে। ভগবান জলও দিয়েছে। এবারো সে আশা থেকেই এই আয়োজন করা হয়। বিয়ের অনুষ্ঠান শেষ না হতে বৃষ্টি শুরু হয়। কিন্তু কিছুক্ষনের মধ্যেই তা শেষ হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য