ইউরিন ইনফেকশন থেকে বাঁচার সহজ উপায়ইউরিন ইনফেকশন খুব সাধারণ একটি সমস্যা। পুরুষদের তুলনায় মেয়েরা এই রোগে বেশি ভোগে। তবে বয়স্ক পুরুষরাও এই রোগে ভুগে থাকে। খুব সাধারণ রোগ হলেও ক্ষেত্র বিশেষে এটি রোগীর প্রাণ নাশের কারণও হতে পারে। এছাড়াও মেয়েদের মুত্রনালী ছোট হওয়ায় ব্যাকটেরিয়া খুব সহজেই মুত্রথলিতে ও কিডনিতে পৌঁছে ইনফেকশন ঘটাতে পারে। বিশেষ করে প্রবীণদের ক্ষেত্রে।

প্রস্রাবের রাস্তায় মূলত ব্যাক্টেরিয়ার সংক্রমণ হলে আমরা তাকে ইউরিন ইনফেকশন বলি। ই কোলাই, সিউডোমোনাস, এন্টারোকক্কাস ইত্যাদি ব্যাক্টেরিয়া এই জাতীয় সংক্রমণের জন্য দায়ী। খুব অল্প কিছু ক্ষেত্রে ফাংগাস ইনফেকশনও হতে পারে।

লক্ষণঃ

ইউরিন ইনফেকশনের প্রধান লক্ষণগুলো হলো জ্বর, তলপেটে ব্যথা, ঘনঘন প্রস্রাব, শরীর দুর্বল লাগা, খাওয়ার অরুচি ইত্যাদি।

কারণঃ

প্রস্রাবের রাস্তায় কোনো বাধা থাকলে (যেমন টিউমার, পাথর, প্রস্টেট গ্ল্যান্ড), অনেকক্ষণ প্রস্রাব ধরে রাখলে, পানি কম খেলে, ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতা বজায় না রাখলে প্রস্রাবের ইনফেকশন হতে পারে। কোনো কারণ ছাড়াও হতে পারে। বৃহদান্ত্রে বাস করা ব্যাক্টেরিয়াগুলো প্রস্রাবের রাস্তায় এসে সংক্রমণ ঘটাতে পারে।

তাই মুত্রনালীর সংক্রমন থেকে পরিপূর্ণ ভাবে মুক্ত হওয়ার কিছু ঘরোয়া উপায় দেওয়া হলঃ

১। প্রচুর পানি পান করুন

যাদের ইউটিআই আছে তাদের প্রচুর পানি পান করা প্রয়োজন । বেশী পানি পান করলে প্রস্রাবের বেগ বৃদ্ধি পায় এবং প্রস্রাবের সাথে শরীর থেকে ব্যাকটেরিয়া বের হয়ে যায়।

২। সোডা পান করুন

না কোন সফট ড্রিংক এর কথা বলছি না, বেকিং সোডার কথা বলছি। এক গ্লাস পানিতে এক চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে সপ্তাহে একদিন সকাল বেলা পান করুন প্রস্রাবের জ্বালা পোড়া কমবে ।

৩। কিছু সেলারি বীজ চিবান

সেলারি বীজ মূত্র বর্ধক হিসাবে কাজ করে। এক মুঠো সেলেরি বীজ চিবিয়ে রস খেতে পারেন অথবা এক কাপ গরম পানিতে কিছু সেলেরি বীজ দিয়ে ঢেকে দিন ,৮ মিনিট পর মিশ্রণটি ছেঁকে নিয়ে পান করুন। এটা ইউ টি আই প্রতিরোধ করে।

৪। শসা খান

শসাতে প্রচুর পানি আছে। প্রতিদিন কম পক্ষে একটি শসা স্লাইস করে খেতে পারেন।

৫। গরম সেঁক নিন

হট ওয়াটার ব্যাগ এ গরম পানি নিয়ে আপনার তলপেটের উপর রাখুন, এতে খুব দ্রুত প্রস্রাবের জ্বালা পোরা ও ব্যথা দূর হবে।

৬। আরামদায়ক পোশাক পড়ুন

স্যাঁতস্যাঁতে জায়গায় ব্যাকটেরিয়া জন্মায়।সূতির অন্তর্বাস পরলে ও ঢিলেঢালা পোশাক পরলে স্পর্শকাতর অঙ্গে ব্যাকটেরিয়ার বৃদ্ধি ব্যাহত হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য