দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত ২০১৮ সালের এইচএসসি পরীক্ষায় ১২টি কলেজ থেকে একজনও পাশ করতে পারেনি। অর্থাৎ এসব কলেজের ফলাফল শূন্য। এবারে এ বোর্ডের এইচএসসি পরীক্ষায় ৬৫৩টি কলেজ অংশগ্রহণ করে।

বৃহস্পতিবার (১৯ জুলাই) দুপুর দেড়টায় দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. তোফাজ্জুর রহমান ফলাফল ঘোষণার সময় সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

শূন্য ফলাফল করা ১২টি কলেজের মধ্যে রয়েছে রংপুর জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার মহিয়সী বেগম রোকেয়া কলেজ। এ কলেজের ৮ জন পরীক্ষার্থী মধ্যে সবাই অকৃকার্য হয়েছে। লালমনিরহাট জেলার দক্ষিণ ঘনশ্যাম স্কুল এন্ড কলেজ, একই জেলার কালিগঞ্জ উপজেলার দুহুলি এসসি উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ, নীলফামারীর অদিতমারী উপজেলার নেমুরী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ, নীলফামারী সদর উপজেলার নগর দারুনী স্কুল এন্ড কলেজ, ঠাকুরগাঁও জেলা বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার রতœাই বেগুলাবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ, রংপুরের পীরগাছা উপজেলার তাম্বুলপুর কলেজ, বদরগঞ্জ উপজেলার কুতুবপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ, কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলার উমানন্দ স্কুল এন্ড কলেজ, রংপুর সদরের অক্সব্রিজ কলেজ, মিঠাপুকুর উপজেলার পদাগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ এবং ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার মোড়লহাট জনতা স্কুল এন্ড কলেজ। এসব কলেজে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল একজন হতে সর্বোচ্চ ৭ জন পর্যন্ত। এদের মধ্যে একজনও পাশ করতে পারেনি।

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. তোফাজ্জুর রহমান জানান, শূন্য ফলাফল করা এসব কলেজের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে। কোন কারণ দর্শানো ব্যতিরেকেই এসব কলেজ বন্ধ করে দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডে শূন্য ফলাফল কলেজের সংখ্যা ছিল ২০১০ সালে ৫টি, ২০১১ সালে ৭টি, ২০১২ সালে ৫টি, ২০১৩ সালে ৭টি, ২০১৪ সালে ৭টি, ২০১৫ সালে ৫টি, ২০১৬ সালে ৮টি এবং ২০১৭ সালে ১৬টি। এবারে দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের অধীনে ১৯৭টি কেন্দ্রের মাধ্যমে ৮টি জেলার ৬৫৩টি কলেজ পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য