ইরাকে বিক্ষোভ, নিরাপত্তাবাহিনীর লাঠিপেটাসরকারের বিরুদ্ধে মৌলিক সেবা নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হওয়া ও অবকাঠামোগত উন্নতি সাধন করতে না পারার অভিযোগে বিক্ষোভে নেমেছে ইরাকের জনগণ। তাদের দমাতে লাঠিপেটা ও জল কামান ব্যবহার করেছে নিরাপত্তাবাহিনী। সোমবার দেশটির বাসরা প্রদেশের একটি তেলভূমির নিকটে এই ঘটনা ঘটে। খবর আল জাজিরার।

স্থানীয় কর্মকর্তাদের উদ্ধৃত করে খবরে বলা হয়, বাসরার জুবাইর তেলভূমির নিকটে বিক্ষোভ করছে জনগণ। তবে এতে তেল উৎপাদনে ব্যাঘাত ঘটেনি। তেলভূমি থেকে বিক্ষোভকারীদের দূরে রাখতে পুলিশ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে।

নয়দিন ধরে ইরাকে বেশ কয়েকটি তেলভূমিতে বিক্ষোভ করছে ইরাকের জনগণ। বেশ কয়েকটি সরকারি কার্যালয়। রাজনৈতিক দলগুলোর কার্যালয় ও শিয়া মিলিশিয়াদের কার্যালয়ে ঢুকে ভাঙচুর করেছে তারা।

বাসরা, মায়সাম, ধি কার, নাজাফ ও কারবালায় এসব বিক্ষোভের ঘটনা ঘটেছে। বিক্ষোভকারীরা উন্নত সেবা, কর্মসংস্থান, কাজ করার সুযোগ ও ইরানের হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে এসব বিক্ষোভ করছেন।

সোমবার সকালে তারা বাসরায় একটি প্রধান সড়কে সুপ্রিম নেতা রুহুল্লা খোমেনির ছবি এনে তা পুড়িয়েছে।

বিক্ষোভকারীরা জানিয়েছেন, এখন পর্যন্ত বিক্ষোভে সাতজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো কয়েক ডজন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য