অনাবৃষ্টিতে সেচ দিয়ে চলছে আমন ধান চাষের প্রস্তুতিঠাকুরগাঁয়ের রাণীশংকৈলে শুরু হয়েছে আমন ধান চাষ। মৌসুম শুরু হয়ে যাওয়ার বৃষ্টির পানি না পেয়ে শ্যালো মেশিন দিয়ে সেচ দিয়ে পুরোদমে ধান চাষ-রোপনের কাজ চলছে।

এখন ভরা বর্ষাকল। আকাশে মাঝে মধ্যে মেঘের দেখা মিললেও বৃষ্টির দেখা মিলছে না। এ সময় মাঠে ঘাঠে থৈ থৈ পানি থাকার কথা। বৃষ্টির পানিতে অনেক মজা করে মাছ ধরার কাজে মানুষ ব্যস্ত থাকে।

প্রকৃতির পানিতে আমন ধান লাগার ধুম পড়ে। কিন্তু বৃষ্টি না থাকায় মাঠ ঘাট চৌচির। অসময় হয়ে যাওয়ার ভয়ে কৃষক ঠিক সময়কে কাজে লাগাতে চায়।

আষাঢ় শ্রাবণ মানে নাতো মন, ঝরের ঝরো ঝরো ঝরো ঝরিছে, তোমাকে আমার মনে পড়িছে- এমন মধুর কলি যেন হারিয়ে যাচ্ছে বাংলার মাটি থেকে। যেন ঝতুর পরিবর্তন ঘটছে।

সময় মতো বৃষ্টি না হওয়ার কারনে কৃষকের মনে অশান্তির ছাপ দেখা যাচ্ছে। উপজেলার পদমপুর গ্রামের আমন চাষি আব্দুল কাদেরের সাথে কথা হলে তিনি জানান, ধান লাগার মৌসুম শুরু হয়ে গেছে।

বৃষ্টির পানির অপেক্ষায় থাকা যায় না। ধান লাগাতে দেরি হয়ে গেলে ফলন ভাল হবে না। তাই সময় মতো ধান লাগাতেই হয়। খরচ বড় কথা নয়। ভাল ফসল ঘরে তুলতে হবে এমন স্বপ্নেই ধান লাগাতে দেরি করছি না।

তাই উপজেলার মাঠে মাঠে আমন চাষীদের চাষাবাদের ধুম পড়েছে। বৃষ্টির পানির অপেক্ষা নয় সময় মতো ধান লাগাতে হবে। ভাল ফলন ঘরে তুলতে হবে একটাই সপ্ন যেন বাসা বেঁধেছে মনে সব কৃষকের।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য