12 10 18

সোমবার, ১০ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ২৬শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২রা রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

Home - বিনোদন - নিজের বয়স নিয়ে মুখ খুললেন জয়া

নিজের বয়স নিয়ে মুখ খুললেন জয়া

জয়া আহসানের বয়স নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে; দীর্ঘদিন ধরে এ নিয়ে খোঁচাও সইতে হয়েছে এ অভিনেত্রীকে। এতে মানসিকভাবে আহত জয়া আহসান মঙ্গলবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখলেন এক দীর্ঘ প্রতিবাদ।

App DinajpurNews Gif

দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া দেশের মাটিতে ছোটপর্দায় দীর্ঘদিন অভিনয়ের পর বড়পর্দায় পা ফেলে আর পেছনে তাকাননি। অভিনয় ও ব্যক্তিত্বের গুণে বাংলাদেশ ও কলকাতায় নিজেকে প্রতিনিয়ত নিয়ে যাচ্ছেন অনন্য উচ্চতায়।

জনপ্রিয় এ অভিনেত্রীর নতুন চলচ্চিত্র ‘ক্রিসক্রস’ কলকাতায় মুক্তির দিন গুনছে। প্রচারণায় টিজারে ও গানে বাংলাদেশেও ভক্তরা জয়ার অভিনয়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। কিন্তু নিন্দুকরাও থেমে নেই। বয়স নিয়ে বারবার বাক্যবাণে জর্জরিত হতে হচ্ছে জয়াকে। পরিবার ও কাছের মানুষের অনুরোধে এবার মুখ খুললেন জয়া।

জয়া লিখেছেন- “বলা হচ্ছে, আমার বয়স নাকি ৪৬! গুজব-গুঞ্জন আমি বরাবরই খাবরের লবনের মত উপভোগ করে গিয়েছি। দু-একজন সমবয়সী কিংবা আমার চেয়ে বয়সে বড় শ্রদ্ধাভাজন সহকর্মী (বিশেষ করে বেশ কয়েকজন অভিনেত্রী) গণমাধ্যমে নিজেদের অধিকার মনে করে আমার বয়স (ভুল তথ্য) নিয়ে চর্চা করেছে-বিষয়টি মজার। তাই এতদিন উপভোগ করেই গিয়েছি।

“তবে খুব সম্ভবত আমার চুপ থাকাটাকে অনেকে মৌনতা সম্মতির লক্ষণ হিসেবে ধরে নিয়েছেন। নিন্দুকেরাও অস্ত্র হিসেবে আমার বয়সের ভুল তথ্য প্রচার করে আনন্দ পাচ্ছেন।

“এ ক্ষেত্রে আমি প্রথম ও শেষবারের মত সবার উদ্দেশ্যে বলতে চাই: বয়স নয়। একজন শিল্পীর প্রকৃত পরিচয় হওয়া উচিত তার কাজে। ৪৬ কিংবা ৫৬ কিংবা তার চেয়েও বেশি বয়স হলেই অভিনেত্রীরা কাজের অযোগ্য কিংবা তারুণ্যদীপ্ত চরিত্রে অভিনয় করতে পারবেন না-এমন ধারণা বিশ্বের কোনো চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রিই পোষণ করেন না।”

তাই বলে নিন্দুক আর সমালোচকদের এক করে দেখতে নারাজ জয়া। সমালোচকদের প্রতি কৃতজ্ঞ এ অভিনেত্রী মনে করেন, গঠনমূলক সমালোচনা একজন শিল্পীকে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌছে দেয়। জয়ার ভাষ্যে, “আমি আমার অভিনয় জীবনে বরাবরই সমালোচকদের দেখানো পথে চলবার চেষ্টা করেছি।”

জয়া বলছেন, তার বয়স এখনও ৪৬ হয়নি। এমনকি ৪৬ বছর আগে তার বাবা-মা’র বিয়ে তো দূরের কথা, তাদের দেখাও হয়নি। শুধু তাই নয়, উইকিপিডিয়াসহ নানা সূত্র ধরে জয়া সম্পর্কে বিভ্রান্তিকর তথ্যগুলোর উল্লেখ করে সেগুলো সংশোধন করার আহ্বান জানিয়েছেন জয়া আহসান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য