মিয়ানমারে রোহিঙ্গা নিপীড়নের তথ্য সংগ্রহের সময় ছয় মাস আগে গ্রেপ্তার রয়টার্সের দুই সাংবাদিকের বিচার শুরু করেছে দেশটির আদালত।

এক প্রতিবেদনে রয়টার্স জানিয়েছে, ইয়াংগুনের জেলা জজ আদালত সোমবার রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তা আইনে সাংবাদিক ওয়া লোন (৩২) এবং কিয়াও সো ওর (২৮) বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে তাদের বিচার শুরুর আদেশ দেন।

রয়টার্সের দুই সাংবাদিক আদালতে নিজেদের নির্দোষ দাবি করে বলেন, সংবাদিকতার সব নিয়মই তারা অনুসরণ করেছেন।

ঔপনিবেশিক আমলের ওই আইনে দোষী সাব্যস্ত করা হলে তাদের ১৪ বছর পর্যন্ত কারাগারে কাটাতে হতে পারে।

রোহিঙ্গা সঙ্কটের মধ্যে দুই সাংবাদিকের এই বিচার আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়েরও ‍দৃষ্টি কেড়েছে। পশ্চিমা কূটনীতিবিদের কেউ কেউ এবং কোনো কোনো অধিকার সংগঠন এই বিচারকে গণতন্ত্রে প্রত্যাবর্তনের প্রক্রিয়ায় থাকা মিয়ানমারের জন্য একটি পরীক্ষা হিসেবে দেখছেন।

অভিযোগ গঠনের আদেশে বলা হয়, ওই দুই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্টের অধীনে অভিযোগ এনেছে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা জাতীয় নিরাপত্তাকে হমকির মুখে ফেলার উদ্দেশ্য নিয়ে সামরিক বাহিনীর কর্মকাণ্ড সম্পর্কে সম্পর্কে স্পর্শকাতর তথ্য ও নথি সংগ্রহ করেছেন।

মিয়ানমারের নিয়ম অনুযায়ী, আসামিপক্ষের আইনজীবীরা এখন রাষ্ট্রপক্ষের সাক্ষীদের জেরা করবেন। পরে বিচারক রায় ঘোষণা করবেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য