বিনাকর্তনে সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে তরুণ নির্মাতা অন্ত আজাদের চলচ্চিত্র ‘আহত ফুলের গল্প’।

সেন্সর বোর্ডের সদস্য ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ জানিয়েছেন, গত রোববার ছবিটির সেন্সর ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

পিতৃতান্ত্রিক বাংলাদেশের মুসলিম সমাজব্যবস্থা, তথ্যপ্রযুক্তি ও সংস্কৃতি সংস্পর্শ; এ তিনটি বিষয়- সিনেমার তিন চরিত্র শাপলা, কামিনী ও মোহনাকে কিভাবে প্রভাবিত করেছে তাই নিয়ে নির্মিত হয়েছে চলচ্চিত্রটি।

নির্মাতা জানান, এ চলচ্চিত্রে তেমন ফ্যান্টাসি নেই, আছে চারপাশে দেখা ঘটনার বিশ্লেষনের মধ্য দিয়ে আমাদের প্রচলিত জীবনের গভীর সংকটকে উপলব্ধির চেষ্টা। সিরিয়াস বিষয় গল্পের বিষয়বস্তু হলেও- দৈনন্দিন জীবনে বয়ে চলা হাসি-ঠাট্টা, গান-গীত এবং একটি প্রেম কাহিনীর মধ্য দিয়ে গল্পের মূল সুরটি প্রবাহিত।

এতে ৪টি পূর্ণাঙ্গ গান এবং ১টি উত্তরবঙ্গের বিয়ের গীত থাকছে। রবীন্দ্র সংগীত ও বিয়ের গীতটি ছাড়া বাকি গান তিনটি মৌলিক। মৌলিক গান তিনটি লিখেছেন টোকন ঠাকুর, কামরুজ্জামান কামু, সোলায়ামন আকন্দ। কণ্ঠ দিয়েছেন যথাক্রমে পিন্টু ঘোষ, কামরুজ্জামান রাব্বি ও লিপু অসীম। রবীন্দ্র সংগীতে কণ্ঠ দিয়েছেন রোকন ইমন। আর বিয়ের গীতটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন উত্তর বঙ্গের স্থানীয় শিল্পীরা।

এতে অভিনয় করেছেন তাহিয়া খান, সুজন মাহাবুব, আলী আহসান, গাজী রাকায়েত, অনন্যা হক, শেলী আহসান, জয়া, অভি চৌধুরী, শান্ত কুন্ডু, কামরুল হাসান, তৌহিদুল আলম, সজীব, রিফাত, পিয়ারা বেগম, শহীদুল ইসলাম, ওমর চাঁদ, ইকতারুল ইসলাম, আরিফ, মিনহাজ, তাজিন, রাব্বি, শিরিনসহ আরো অনেকে।

সিনেমাটোগ্রাফি করেছেন মো: আরিফুজ্জামান, সম্পাদনা করেছেন সৈকত খন্দকার, আবহ সংগীত ও গানের সংগীতায়োজন করেছেন পিন্টু ঘোষ ও রোকন ইমন, সাউন্ডে আছেন শৈব তালুকদার, কালারে রাশেদুজ্জামান সোহাগ, টাইটেল এন্ড ভিএফএক্সে নাজমুল হাসান।

ওশান মাইন্ড এন্টারটেইনমেন্ট প্রযোজিত ছবিটির মুক্তির তারিখ চলতি মাসের শেষের দিকে ঘোষণা দেওয়া হবে বলে জানান অন্ত আজাদ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য