নীলফামারীর ডোমার উপজেলায়এক দিনে দুই জনের অপমৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে উপজেলার পূর্ব আঠিয়াবাড়ি গ্রামের অষ্টম শ্রেনীর ছাত্র চয়ন চন্দ্র রায় (মিলন) গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। অপরদিকে রাতে শেওটগাড়ি গ্রামের উমর ফারুক (৩৮) মাছ ধরতে গিয়ে বিষধর সাপ দংশন করে। রাতে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

জানা গেছে, উপজেলার পূর্বআঠিয়াবাড়ি গ্রামের লতিত চন্দ্র রায়ের ছেলে ও আঠিয়াবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র চয়ন চন্দ্র রায় মিলন (১৪) তার সহপাঠি সুমনার হাত ধরে টানাটানি করায় সুমনার অভিভাবক মিলনের বাবাকে অবহিত করে। এতে মিলনের বাবা-মা তাকে বকাঝকা করে। এ অভিমানে মিলন নিজ শোয়ার ঘরে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করে। লাশ উদ্ধার করে শনিবার মর্গে পাঠানো হয়েছে।

অপরদিকে উপজেলার শেওটগাড়ি গ্রামের মৃত আতিয়ার রহমানের ছেলে উমর ফারুক বাড়ির পাশ্বে একটি দোহলায় রাতে মাছ ধরার সময় বিষধর সাপ দংশন করে। তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় তার মৃতু হয়।
হরিণচড়া ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম ঘটনা দু’টির সত্যতা নিশ্চিত করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য