সাহিত্যের ব্রিটিশ গোয়েন্দা জেমস বন্ড চরিত্রে বড় পর্দায় কতো কেরামতিই না দেখিয়েছেন ব্রিটিশ অভিনেতা ড্যানিয়েল ক্রেগ। কিন্তু বাস্তবে কাজটা অত সহজ নয়। বরং অনেক কঠিন। কারণ বাস্তবে যারা গোয়েন্দাগিরি করেন, এবার সত্যি সত্যি তাদের মুখোমুখি হলেন পর্দার এই গুপ্তচর।

ভার্জিনিয়ার ল্যাংলিতে সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্স এজেন্সির (সিআইএ) সদর দফতরে সিআইএ আয়োজিত ‘রিল ভার্সেস রিয়েল’ অনুষ্ঠানে অংশ নেন ড্যানিয়েল ক্রেগ। পর্দায় যা দেখা যায় আর বাস্তবে যা ঘটে, সেগুলোর মধ্যে তুলনা করতেই সম্প্রতি ইভেন্টটি চালু করে সিআইএ।

সিআইএ’র অফিশিয়াল ব্লগে জানানো হয়েছে, তাদের নেতৃবৃন্দ ও কর্মীদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন ক্রেগ। তিনি তখন মন্তব্য করেন, বাস্তব জীবনে গোয়েন্দাগিরির বেলায় অনেক গোপনীয়তা বজায় রাখতে হয়, বিনোদন বিশ্বে গোয়েন্দাদের বেলায় যা থাকে না।

সিআইএ বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথোপকথনের সময় গোয়েন্দা সংগ্রহশালার অনেকদিক সম্পর্কে ধারণা পেয়েছেন ক্রেগ। এছাড়া তিনি জেনেছেন, সিআইএ’র মিশনকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য তাদের পাঁচজন পরিচালক কীভাবে কাজ করেন। সংস্থাটির কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় সিআইএ কর্মকর্তাদের দলীয় ঐক্য, কাজের প্রতি আন্তরিকতা ও অঙ্গীকার এবং বুদ্ধিমত্তা দেখে মুগ্ধ হন ৫০ বছর বয়সী এই তারকা।

ড্যানিয়েল ক্রেগ এখন পঞ্চম ও শেষবারের মতো জেমস বন্ড চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তুতি শুরু করেছেন। নাম চূড়ান্ত না হওয়া সিরিজের ২৫তম ছবিটি পরিচালনা করবেন ড্যানি বয়েল।

বন্ড সিরিজের ‘ক্যাসিনো রয়েল’ (২০০৬), ‘কোয়ান্টাম অব সোলেস’ (২০০৮), ‘স্কাইফল’ (২০১২) ও ‘স্পেক্টর’ (২০১৫) ছবিতে জেমস বন্ড চরিত্রে অভিনয় করেছেন ড্যানিয়েল ক্রেগ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য