শুক্রবার কুখ্যাত ‘এল চ্যাপোর’ নেতৃত্বাধীন অপরাধী গোষ্ঠীর এক শীর্ষস্থানীয় সদস্যকে যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দিয়েছে মেক্সিকো। দামাসো লোপেজ নুনেজ নামের ওই অভিযুক্ত ব্যক্তি শীর্ষ সন্ত্রাসী জোয়াকুইন এল চ্যাপো গুজম্যানকে ২০০১ সালে কারাগার থেকে পালাতে সহায়তা করেছিল।

তাকে ২০১৭ সালের মে মাসে গ্রেফতার করা হয়েছিল। সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, লোপেজ এল চ্যাপোর বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রে চলমান মামলার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একজন সাক্ষী। এল চ্যাপো এখন যুক্তরাষ্ট্রের কারাগারে আটক রয়েছে।

অভিযুক্ত দামাসো লোপেজ মেক্সিকোর কারাগারের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ছিল। ২০০১ সালে শীর্ষ সন্ত্রাসী জোয়াকুইন এল চ্যাপো গুজম্যানকে জেল থেকে পালাতে সহায়তা করে সে। এরপর নিজেই সিনালোয়া অপরাধী চক্রে যোগ দেয় লোপেজ।

সেখানে সে হয়ে ওঠে অন্যতম শীর্ষ ক্ষমতাধর ব্যক্তি। মেক্সিকোর আইন মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আইনগত বিষয়ে সাংবিধানিক শর্তের লঙ্ঘন যাতে না হয় সেজন্য মেক্সিকোতে তার বিরুদ্ধে যত অভিযোগ রয়েছে তা খারিজ করে দেওয়ার আবেদন করা হবে।

বিজিনেস ইনসাইডার লিখেছে, ২০১৬ সালে গুজম্যান গ্রেফতার হলে গোষ্ঠীর নিয়ন্ত্রণ নিয়ে গুজম্যানের ছেলেদের বিরুদ্ধে লোপেজ ও তার ছেলে রক্তক্ষয়ী সংঘাত শুরু করে। পরবর্তীতে লোপেজ গুজম্যানের প্রতিদ্বন্দ্বী জালিসকো নিউ জেনারেশন কার্টেলের সঙ্গে আঁতাত করার চেষ্টা করছিল। কিন্তু তার আগেই পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে সমর্থ হয়।

লোপেজের ছেলে দামাসো লোপেজ সেরানো যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তের মেক্সিকালিতে ২০১৭ সালের জুলাই মাসে মার্কিন কর্তৃপক্ষের কাছে আত্মসমর্পন করে। মাদক পাচারের অভিযোগে গত জানুয়ারিতে মার্কিন আদালতে তার সাজা হয়

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য