উজানের ভাড়ি বর্ষণ আর পাহাড়ি ঢলের কারনে তিস্তা নদীর পানি বাড়তে শুরু করেছে। ইতিমধ্যে ডিমলা উপজেলার নির্মাঞ্চলের কিছু এলাকার প্লাবিত হয়েছে।

ডিমলা উপজেলার পূর্ব ছাতনাই, টেপা খড়িবাড়ী, খগা খড়িবাড়ী, খালিশা চাপানী এবং ঝুনাগাছ চাপানী এসব এলাকায় তিস্তার পানি বৃদ্ধিতে অনেক ঘরবাড়ী পানিতে ভরে গেছে।

এ বিষয়ে টেপা খড়িবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম (শাহিন) বলেছেন তার ইউনিয়নের একতা চর উত্তর খড়িবাড়ি এলাকায় কয়েকশত পরিবারের বসতবাড়ি ফসল ক্ষেত বন্যার পানিতে ঢুবে গেছে।

খালিশা চাপানী ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান বলেন, তার ইউনিয়নের ছোট খাতা ও পূর্ব বাইশ পুকুরের দুই শতাধিক পরিবার বন্যা কবলিত হয়েছেন।

ঝুনাগাছ চাপানী ইউ.পি চেয়ারম্যান আমিনুর রহমান বলেন, তিস্তা নদী পানি বৃদ্ধি কারণে তার ইউনিয়নের ছাতুনামা ও ভেন্ডাবাড়ী গ্রামের দুই শতাধিক পরিবার পানিবন্ধ হয়ে পড়েছেন।

পাউবো ডালিয়া ডিভিশনের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রফিকুল আলম চৌধুরী বলেন, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে তিস্তা ব্যারেজের সব কয়টি জলকপাট খুলে দেওয়া হয়েছে এবং তিস্তা এলাকার নাগরিক এবং পাশ্ববর্তী ইউনিয়নগুলোকে শর্তক থাকতে বলা হয়েছে বলে জানান। তবে আকাশের বৃষ্টি এবং উজানের ঢলের কারণে পানি প্রতিটি মুহূর্তে বাড়ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য