দিনাজপুরের কাহারোলে দশ মাইল-বীরগঞ্জ মহাসড়কের উন্নয়ন কাজে মাদ্রাসা মাঠ ব্যবহারে শিক্ষার্থীদের দূর্ভোগ।

জানা যায়, কাহারোল উপজেলার সুন্দরপুর ইউনিয়নের গড় মল্লিকপুর ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার মাঠে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মালামাল গত মে মাস থেকে আছে। এখানে অবস্থান নিয়ে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান দশ মাইল-বীরগঞ্জ মহাসড়কের কাজ করছে। মাঠে মহাসড়কের কাপেটিং ব্যবহৃত বিটুমিন মেসানোর মেশিনের কালো ধোঁয়া, ধুলোবালি, মেশিনের শব্দ ও গরম বাতাসে শিক্ষার্থীরা চরম দুর্ভোগের শিকার।

এ ‘কালো ধোঁয়া আর শব্দ দূষণের কারণে দরজা বন্ধ করে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে। মাঠে ভারী যানবাহন চলাচল করায় ও মেশিন স্থাপন করায় মাঠটি কাঁদা পানিতে ভর্তি হয়ে গেছে। মাঠে খেলাধুলার পরিবেশ নেই। তবে ভয়ে শিক্ষার্থীরা কিছু বলছে না।

এ ব্যাপরে গড় মল্লিকপুর ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা সুপার আব্দুল মান্নান এর সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মাদ্রাসার উন্নয়নের জন্য যথাযথ নিয়ম পালন ও অনুমতি নিয়ে মাদ্রাসা কমিটি মাঠটির অর্ধেক ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে। শিক্ষার্থীদের একটু কষ্ট হচ্ছে স্বীকার করে তিনি বলেন, মাদ্রাসার কয়েকটি রুম করে ব্যবহারকারীরা করে দিবে এবং আরও কিছু উন্নয়ন সহযোগিতা তারা মাদ্রাসাকে করবে। মাদ্রাসার উন্নয়নের জন্যেই একটু কষ্ট মেনে নিতে হচ্ছে। মাদ্রাসায় সাড়ে তিনশ শিক্ষার্থী রয়েছে। গত মে মাস থেকে তারা আছেন এবং আর এক মাস হয়তো লাগবে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, দিনাজপুর সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের অধিনে উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় কাহারোল উপজেলার দশ মাইল থেকে বীরগঞ্জ উপজেলার শেষ সীমানা পর্যন্ত মহাসড়কে কাপেটিং এর কাজ চলছে। কাজটি করছেন মেসার্স রেপআরসি নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য