ভারতের মুম্বাইয়ে ভারী বর্ষণের কারণে একটি সেতু ধসে অন্তত পাঁচজন আহত হয়েছেন। এছাড়া দুর্ভোগে পড়েছেন হাজার হাজার নগরবাসী। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বাণিজ্যিক রাজধানী মুম্বাইয়ের আন্ধেরি স্টেশনে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এই অঞ্চলটি শহরের অন্যতম ব্যস্ত এলাকা। পশ্চিমাঞ্চলের এই স্টেশনে তাই রেলযোগাযোগ বিঘ্নিত হচ্ছে। বাড়ছে মানুষের ভিড়। ইতোমধ্যে সেখানে পুলিশ পৌঁছে গেছে এবং মেরামত প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

ট্রেনচালক চন্দ্রশেখর সাওয়ান্ত বিবিসিকে বলেন, তিনি স্থানীয় সময় সাড়ে সাতটায় ব্রিজটি ধসে পড়তে দেখেন। সাথে সাথেই জরুরি ব্রেক করেন তিনি। ধংসস্তুপের মাত্র ২০০ ফিট সামনে থামে ট্রেনটি।

কর্মকর্তাদের দাবি, তড়িৎ ব্যবস্থা নেওয়ায় অনেক জীবন বাঁচানো সম্ভব হয়েছে। দেশটির জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বাহিনীর কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

বিবিসি জানায়, মুম্বাইয়ে ২ কোটি ২০ লাখ মানুষের বসবাস। বিশ্বের চতুর্থ জনবহুল এই শহরে ট্রেনই নগরবাসীর জন্য স্বস্তির বাহন। কিন্তু বৃষ্টির সময় শহরের অনেক অবকাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

গত বছর শহরের এলফিনস্টোন স্টেশনে একটি ফুটওভার ব্রিজে পদপিষ্ট হয়ে ২২ জন মারা গিয়েছিলেন। আহত হয়েছিলেন ৩০ জনেরও বেশি।

এছাড়া অতিবর্ষণে বন্যাও দেখা দিয়েছিল। রাজপথ যেন তখন নদী হয়ে যায়। এরপর আবাসিক ভবন ধসে মারা গিয়েছিলেন ৩০ জন। অতিবর্ষণে মৃত্যু হয়েছিল আরও ২০ জনের।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য