রংপুরে স্বামীর নির্যাতনে তমকিনা বেগম (৫০) নামে তিন সন্তানের জননীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। সোমবার সকালে নগরীর ৩১ নং ওয়ার্ডের নাজিরদিগর বনগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। হত্যার পর থেকে পলাতক রয়েছেন স্বামী নুরুল হক (৫৫)।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানান, সোমবার ফজরের নামাজের আগে পারিবারিক বিষয় নিয়ে নুরুল হকের সঙ্গে ঝগড়া লাগে স্ত্রী তমকিনার। একপর্যায়ে নুরুল হক বেধড়ক মারধর করেন তমকিনাকে।

এতে গুরত্বর আহত হন তিনি। পরে হাসপাতালে নেয়ার পথে সকাল সাড়ে ৬টার দিকে মারা যান তমকিনা।

এদিকে মৃত্যুর পর থেকেই পলাতক রয়েছেন স্বামী নুরুল হক কোতোয়ালি থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) মোক্তারুল আলম জানান, প্রাথমিকভাবে নিহতের শরীরে আঘাতের চিহৃ পাওয়া গেছে।

ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য