আফগানিস্তানের নানগারহার প্রদেশের কেন্দ্রীয় শহর জালালাবাদে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেছে উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশ (আইএস)। গতকালের (রোববার) ওই বোমা হামলায় অন্তত ২০ জন নিহত ও অপর অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হয়।

আফগান প্রেসিডেন্ট মোহাম্মাদ আশরাফ গনি একটি জনসভায় ভাষণ দিয়ে চলে যাওয়ার পর গণজমায়েতের মধ্যে এক আত্মঘাতী বোমার বিস্ফোরণ ঘটালে এসব হতভাগ্য মানুষ হতাহত হয়।

দায়েশ দাবি করেছে, তারা প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনিকে হত্যা করতে চেয়েছিল। জালালাবাদ শহরের পাশতুনিস্তান চত্বরে বোমা বিস্ফোরণের সময় প্রেসিডেন্ট গনি ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন না। তিনি কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও জনসভায় বক্তব্য রাখতে রোববার জালালাবাদ সফর করেন।

আফগানিস্তানে গত কয়েক মাসে বেশ কিছু সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। এসব হামলার বেশিরভাগের দায়িত্ব স্বীকার করেছেন উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশ ও তালেবান। দেশের নিরাপত্তা পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ার জনমনে ক্ষোভ পুঞ্জিভুত হচ্ছে।

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ও আফগানিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতির উন্নতির প্রতিশ্রুতি দিয়ে মার্কিন নেতৃত্বাধীন বাহিনী ২০০১ সালে দেশটি দখল করে নেয়। কিন্তু আফগানিস্তানে মার্কিন বাহিনীর উপস্থিতি এখন পর্যন্ত দেশটির নিরাপত্তা পরিস্থিতির উন্নতি হয়নি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য