‘সঞ্জু’ লেখা পোস্টার নিয়ে পাশাপাশি দাঁড়িয়ে আছেন বলিউড তারকা অক্ষয় কুমার, সালমান খান ও সাইফ আলি খান। তাদের ঠিক পাশেই অজয় দেবগণ। ঘটনাটি ১৯৯৩ সালের।

রাজকুমার হিরানি যে ২০১৮ সালে এসে ‘সঞ্জু’ বানাবেন তা তখন কেউই ভাবেননি।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে ঋষি কাপুর ২৫ বছর আগের সেই ছবিটি শেয়ার করেছেন সম্প্রতি। বলিউড তারকারা তখন আদালতের সাজা পাওয়া সঞ্জয় দত্তের পক্ষে অবস্থান নিয়েছিলেন। তারকাদের হাতের পোস্টারে ছোট অক্ষরে লেখা রয়েছে, ‘সঞ্জু- উই আর উইথ ইউ।’

ক্যাপশনে ঋষি রসিকতার সুরে লিখেছেন, “ধন্যবাদ! এই মানুষগুলো ‘সঞ্জু’ ছবির প্রচারণা চালাচ্ছে আগে থেকেই।”

অভিনেতা সঞ্জয় দত্তের জীবন অবলম্বনে নির্মিত ‘সঞ্জু’র মুক্তি উপলক্ষে স্থিরচিত্রটি শেয়ার করলেন ঋষি। তার ছেলে রণবীর কাপুর ছবিটিতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।

গত মে মাসে পরিচালক রাজকুমার হিরানি ও প্রযোজক বিধু বিনোদ চোপড়া ‘সঞ্জু’র ট্রেলার দেখান ঋষিকে। ছেলের অভিনয় দেখে চমকে যান তিনি। তার চোখ বেয়ে তখন গড়িয়ে পড়ে আনন্দ অশ্রু। ছেলেকে দেখলেও ৬৫ বছর বয়সী এই অভিনেতা ভেবেছিলেন, এ যেন সঞ্জয় দত্ত!

‘সঞ্জু’তে তুলে ধরা হয়েছে বলিউডে সঞ্জয় দত্তের উত্থান-পতনের গল্প, কীভাবে সন্ত্রাস প্রতিরোধ আইনে তিনি গ্রেফতার হয়েছিলেন ইত্যাদি। ১৯৯৫ সালের অক্টোবরে জামিনে মুক্তি পান সঞ্জয় দত্ত। কিন্তু ওই বছরের ডিসেম্বরে আবার গ্রেফতার করা হয় তাকে। ১৯৯৭ সালের এপ্রিলে পুনরায় জামিনে বেরিয়ে আসেন তিনি। ২০১৩ সালে সুপ্রিম কোর্ট তাকে পাঁচ বছরের সাজা দেন। তার আগেই দেড় বছর কারাভোগ করা হয়ে গেছে তার। ২০১৬ সালে পুনের ইয়েরওয়াড়া কারাগার থেকে ছাড়া পান তিনি।

সঞ্জয়ের বায়োপিকে এসব সত্যি ঘটনাও রয়েছে। ‘সঞ্জু’তে আরও অভিনয় করেছেন আনুশকা শর্মা, সোনম কাপুর, দিয়া মির্জা, পরেশ রাওয়াল, মনীষা কৈরালা, জিম সর্ব, কারিশমা তান্নাসহ অনেকে। বহুল প্রতীক্ষিত ছবিটি মুক্তি পেয়েছে শুক্রবার (২৯ জুন)।

এদিকে মুক্তির প্রথম দিনেই সাড়া ফেলে দিয়েছে ‘সঞ্জু’। শুক্রবার এটি আয় করেছে ৩৪ কোটি ৭৫ লাখ রুপি। এ বছর বলিউডের আর কোনও ছবি প্রথম দিনে এত টাকা ঘরে আনতে পারেনি। সালমান খানের ‘রেস থ্রি’ ২৯ কোটি ১৭ লাখ রুপি আয় করেছিল গেলো রোজার ঈদের দিন। শীর্ষ পাঁচে এরপরে আছে যথাক্রমে ‘বাঘি টু’ (২৫ কোটি ১০ লাখ রুপি), ‘পদ্মাবত’ (১৯ কোটি রুপি) ও ‘ভিরে ডি ওয়েডিং’ (১০ কোটি ৭০ লাখ রুপি)।

রণবীরের ক্যারিয়ারে এর আগে মুক্তির প্রথম দিনে সর্বোচ্চ আয় করেছিল ‘বেশরম’ (২১ কোটি ৫৬ লাখ রুপি)। এছাড়া তার সেরা পাঁচ ব্যবসাসফল ছবির তালিকায় রয়েছে ‘ইয়ে জাওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি’ (১৯ কোটি ৪৫ লাখ রুপি), ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’ (১৩ কোটি ৩০ লাখ রুপি) ও ‘তামাশা’ (১০ কোটি ৯৪ লাখ রুপি)।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য