দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলায় বৃহষ্পতিবার সকালে উপজেলার করতোয়া নদীতে জুলফিকার আলী ওরফে জুলফার(৩০) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীর লাশ পাওয়া গেছে।

সে উপজেলার বিনোদনগর ইউনিয়নের কাঁচদহ গ্রামের আঃ মজিদের ছেলে। জুলফিকার ওরফে জুলফারের স্ত্রী পরিবানু জানান জুলফার গত মঙ্গলবার রাত ১০ টার দিকে বাড়ী থেকে নদীতে নৌকা দেখতে বের হয়ে যাওয়ার পর আর বাড়ী ফিরে আসে নাই। পরদিন বুধবার পরিবারের সদস্যরা দিনভর তার সন্ধান করতে থাকেন।

এক পর্যায়ে জাতের ঘাট নামক স্থানে তার নৌকা, চটের বস্তা,পরনের কাপড়,অপরিচিত একটি গেঞ্জি ও কয়েক পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট খুঁজে পায়।

এরপর বৃহষ্পতিবার শালপাড়া নামক স্থানে তার লাশ নদীতে ভাসমান অবস্থায় রয়েছে বলে সংবাদ পায়। জুলফারকে কে বা কারা হত্যা করেছে সে ব্যাপারে তার স্ত্রী পরিবানু স্পষ্ট কিছু না বলতে পারলেও তার সন্দেহের তীর নিজ গ্রামের ১ জন এবং পাশ্ববর্তী পীরগঞ্জ থানা উপজেলার পার বোয়ালমারী গ্রামের ১ জনের দিকে।

এ ব্যাপারে নবাবগঞ্জ থানার ওসি সুব্রত কুমার সরকার জানান লাশটি যেখানে পাওয়া গেছে সেটি রংপুরের পীরগঞ্জ থানা এলাকা। ওই থানার পুলিশ এ ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য