দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ‘বসুন্ধরা খাতা-কালের কণ্ঠ জাতীয় স্কুল বিতর্ক প্রতিযোগিতা’র বিভাগীয় পর্বে সেরা হলো দিনাজপুরের সারদেশ্বরী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়।

বিতর্ক প্রতিযোগিতা রংপুর হাই স্কুুলে অনুষ্ঠিত হয়। এই প্রতিযোগীতায় রংপুর বিভাগের জেলা পর্যাযে বিজয়ী রংপুর, দিনাজপুর, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও ও গাইবান্ধার আটটি জেলার স্কুল অংশ নেয়।

‘যুক্তিতে আলোকিত হও’ স্লোগান নিয়ে রংপুরে হয়ে গেল ‘বসুন্ধরা খাতা-কালের কণ্ঠ জাতীয় স্কুল বিতর্ক প্রতিযোগিতা’র বিভাগীয় পর্যায়ের লড়াই। তাতে ঠাকুরগাঁও সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়কে হারিয়ে সেরা হয়েছে দিনাজপুর সারদেশ্বরী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। শ্রেষ্ঠ বক্তা হয়েছে বিজয়ী দলের জুননু রাইন আহমেদ দিয়া।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কালের কণ্ঠ সম্পাদক ও কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন। বক্তব্য দেন রংপুর হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক আবুল মুযন আযাদ, বসুন্ধরা পেপারসের মার্কেটিং ম্যানেজার ইয়াসির সাদ মোহাম্মদ এবং শুভসংঘ রংপুর জেলা সভাপতি ইরা হক। অংশগ্রহণকারী সবার হাতে ক্রেস্ট ও বসুন্ধরা খাতা তুলে দেওয়া হয়।

ইমদাদুল হক মিলন বলেন, ‘আলোকিত মানুষ গড়তে কিংবা তৈরি করতে বিতর্ক অপরিহার্য। এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা দেশ-বিদেশ সম্পর্কে সহজেই জানতে পারে। ফলে এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে একটি চিন্তাশীল নতুন প্রজন্ম তৈরি হচ্ছে।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন কালের কন্ঠ রংপুর অফিস প্রধান স্বপন চৌধুরী । এ ছাড়াও ৮ জেলার জেলা প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

দিনাজপুরের সারদেশ্বরী বালিকা উচ্চ বিদ্যায়ের বির্তকে অংশ গ্রহনকারী শিক্ষার্থীরা হলো-মোছাঃ জুননু রাইন আহমেদ দিয়া মোছাঃ নাজনিন আক্তার ও লায়লাতুন রোজ। তাদের সঙ্গে সফর সঙ্গী ছিলেন উক্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তপন কুমার রায়,কালের কন্ঠের জেলা প্রতিনিধি এমদাদুল হক মিলন, শুভসংঘ দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি রাসেল ইসলাম,বির্তাকিক মাহাবুব আলম ও মোসাদ্দেক হোসেন ও অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ।

এদিকে ‘বসুন্ধরা খাতা-কালের কণ্ঠ জাতীয় স্কুল বিতর্ক প্রতিযোগিতা’র বিভাগীয় পর্বে দিনাজপুরের সারদেশ্বরী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় বিজয়ী হওয়ায় সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলহাজ¦ ফরিদুল ইসলাম, শুভসংঘ দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি রাসেল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মনজিল শাহা দিপু, হাবিপ্রবি শুভসংঘের সভাপতি ডাঃ মিঠুন চন্দ্র রায় ওসাধারণ সম্পাদক শাহ নেওয়াজ শরিফ অভিন্দন জানিয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য