গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় সরকারিভাবে বোরো ধান ক্রয় না হওয়ায় চাষীরা ন্যায্য মূূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

জানা গেছে, সরকার চলতি বোরো মৌসুমে ধানের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করণের লক্ষে সরাসরি কৃষকের নিকট থেকে ধান ক্রয়ের সিদ্ধান্ত নিলেও এ উপজেলায় ধান ক্রয়ের বরাদ্দ মেলেনি।

এদিকে চলতি বোরো মৌসুমে ধানের বাম্পার ফলন হলেও সরকারিভাবে ধান ক্রয়ের বরাদ্দ না মেলায় ধান চাষীরা উৎপাদিত ধানের ন্যায্য মূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

এ বছর উপজেলায় ২৬ হাজার ৫’শ হেক্টর জমিতে বোরো ধান রোপন করা হয়। সরকার ধান ক্রয় না করায় বাজারে ধানের চাহিদা হ্রাস পাওয়ায় চাষীরা প্রতি মন ধান জাত ভেদে ৬’শ থেকে সাড়ে ৬’শ টাকা দরে বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন।

এতে করে তারা উৎপাদন খরচ তুলতে না পেরে লোকসান গুনছেন। এছাড়া তারা ব্যাংক ,মহাজনি ও এনজিও থেকে নেওয়া ঋণ পরিশোধ করতে হিমসিম খাচ্ছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আলাউদ্দিন বসুনিয়ার সাথে কথা হলে তিনি জানান দেশের অন্যান্য অঞ্চলে সরাকরিভাবে বোরো ধান ক্রয় শুরু হলেও এ উপজেলায় ধান ক্রয়ের এ পর্যন্ত সরকারি কোন নির্দেশনা পাওয়া যায়নি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য