‘দেশের মানুষ শান্তিতে নাই। যুব সমাজ শান্তিতে নাই। মাদকে সব আচ্ছন্ন করে ফেলেছে। পরিবর্তন চায় মানুষ। সুশাসন দেখতে চায় মানুষ। সুশাসন দিতে পারে একমাত্র জাতীয় পাটি।’ জাতীয় পার্টি সরকার গঠন করলে দেশে সুশাসন প্রতিষ্ঠিত হবে।

রোববার দুপুরে কুড়িগ্রামের উলিপুর স্টেডিয়ামে এক জনসভায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, আমাদের বেলায় মাদক ছিল না। মানুষ খুন হয় নাই। আমরা মানুষকে শান্তি দিয়েছি। আমাদের বেলায় দুর্নীতির কথা ছিল না। এই হাসিনার আমলে আমাদের জয়ের যাত্রা শুরু হোক। জাতীয় পার্টির জয়যাত্রা শুরু হোক। ’

উলিপুর স্টেডিয়াম মাঠে উপজেলা জাতীয় পার্টির উদ্যোগে এই জনসভা অনুষ্ঠিত হয়। উলিপুর জাতীয় পার্টির সভাপতি আতিয়ার রহমান মুন্সির সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় চীফ হুইপ তাজুল ইসলাম চৌধুরী। স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা, রংপুর সিটি কর্পোরেশন এর মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা এবং কুড়িগ্রাম-৩ আসনের জাতীয় পার্টির মনোনিত প্রার্থী ডা: আক্কাছ আলী সরকার প্রমুখ।

সকাল থেকেই এরশাদের আগমন উপলক্ষে সারা উপজেলায় ছিল সাজসাজ রব। হাজার হাজার মানুষ কড়া রোদকে উপেক্ষা করে লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে জনসভায় উপস্থিত হন। স্টেডিয়াম মাঠ ছিল কানায় কানায় পরিপূর্ণ। মাঠের চারদিকেও ছিল মানুষের ঢল। জনসভাকে আনন্দ মূখর করতে সভার আগ মূহুর্তে ১৫/২০টি ঘোড়া নিয়ে মাঠ প্রদক্ষিণ করে একদল ঘোড়সড়ওয়ার। উপজেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মানুষ ছুটে আসে এরশাদকে এক নজর দেখার জন্য।

উল্লেখ্য, কুড়িগ্রাম-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী মাঈদুল ইসলাম মুকুল অসুস্থ্যতাজনিত কারণে মৃত্যুর পর তার শূন্য আসনে উপ-নির্বাচনে অংশগ্রহন ও জাতীয় পার্টির মনোনিত প্রার্থীকে পরিচয় করিয়ে দেওয়া ও ভোট প্রার্থনার উদ্দেশ্যে এরশাদ এই সফর করেন। সফরে কুড়িগ্রামের চারটি আসনের সম্ভাব্য প্রার্থীগণও উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য