ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ গত ১০দিন বন্ধ থাকার পর উৎপাদনে শুরু হয়েছে দিনাজপুরের মধ্যপাড়া পাথর খনিতে। আজ শনিবার সকাল থেকে পাথর উত্তোলন শুরু করেছে খনিটির ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জিটিসি।

ভূ-গর্ভে ব্যবহারীত বিস্ফ্রোক না থাকায় চলতি (জুন) মাসের গত এক তারিখ থেকে পাথর উত্তোলন বন্ধ ছিল খনিটিতে।

জানাগেছে ভূ-গর্তে ব্যবহারীত বিস্ফ্রোক শেষ হয়ে যায়ওয়ায়, চলতি সনের গত ৩১মে উৎপাদন শ্রমিকদের সাময়িক ছুট দিয়ে দেয় মধ্যপাড়া পাথর খনির উৎপাদনকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জার্মনিয়া ট্রাষ্ট কনসোডিয়াম (জিটিসি) । এতেকরে চলতি মাসের (জুন) এক তারিখ থেকে পাথর উত্তোলন বন্ধ হয়ে যায় খনিটিতে। বন্ধ হওয়ার পর মধ্যপাড়া খনি কর্তৃপক্ষ বিস্ফ্রোকদ্রব্য আমদানী করায়, গতকাল শনিবার (১০জুন) থেকে আবারো পুরোদমে পাথর উত্তোলন শুরু করেছে খনিটির ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জিটিসি।

জিটিসি কর্তৃপক্ষ বলেন বিস্ফ্রোক শেষ হওয়ার প্রায় ছয় মাস পুর্বে বিস্ফ্রোক এর চাহিদা দিয়ে চিঠি দেয়া হয় খনি কর্তৃপক্ষকে, কিন্তু খনি কর্তৃপক্ষ সময়মত বিস্ফ্রোক সরবরাহ করতে না পারায়, বিস্ফ্রোকের অভাবে উৎপাদন বন্ধ করতে বাধ্যহয় জিটিসি। এতে করে ১০দিন উৎপাদন বন্ধ থাকে খনিটিতে।

তবে মধ্যপাড়া গ্রানাইড মাইনিং কোম্পানী লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) দাবী করেন, উৎপাদন বন্ধ হওয়ার কয়েক দিনের মাথায় বিস্ফ্রোক আমদানী করা হয়েছে।

এদিকে জিটিসি’র মহাব্যবস্থাপক জাবেদ সিদ্দিকি বলেন বিস্ফ্রোক পাওয়ামাত্র কাজ শুরু করা হয়েছে। বিস্ফ্রোক প্রক্রিয়াজাত করে ব্যবহার উপযোগী করতে কয়েকদিন সময় লেগে যায়। খনি কর্তৃপক্ষ সময়মত বিস্ফোক সরবরাহ করলে এই সময় উৎপাদন বন্ধ করতে হত না।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য