এবারের ঈদে ‘মুখোশ’ ব্যান্ডের সঙ্গে একটি দ্বৈত গানে অংশ নিয়েছেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি । ২০১৬ সালে বের হয়েছিল তার সর্বশেষ একক অ্যালবাম। অনেক দিন ধরে নানা কারণেই গান থেকে দূরে রয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কারপ্রাপ্ত এই শিল্পী।

হঠাৎ কেন রক ব্যান্ডের সঙ্গে গান করেছেন? ন্যান্সি বলেন, মুখোশ ব্যান্ডের গান ভালো লাগে। সেই নব্বই দশক থেকেই তাদের গান শুনে বড় হওয়া। ফলে যখনই সুযোগটা এলো না করলাম না।

এ ঈদুল ফিতরে ‘খুব মনে পড়ে’ শিরোনামে দ্বৈত গানটিতে ন্যান্সির সঙ্গে কন্ঠ দিয়েছেন মুখোশ ব্যান্ডের ভোকাল খালিদ হোসেন রাজু। তিনি বলেন, ন্যান্সি বরাবরই একজন গুণী শিল্পী। আমাদের সেই নব্বইয়ের দশকের মেলোডি গানের সাথে এ সময়ের একজন শিল্পীর গলা মেলানো, এ যেন নতুন পুরাতনের মেল বন্ধন। এই মেলবন্ধনই আমাদের গানের জগতকে এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

‘খুব মনে পড়ে’ গানটির কথা লিখেছেন জনপ্রিয় গীতিকার দেহলভী এবং যাত্রাশেখ, সুর ও সংগীত আয়োজনে মুখোশ ব্যান্ড।

গানটি প্রসঙ্গে মুখোশ ব্যান্ডের দলনেতা রোজ মুহিত বলেন, ‘আমরা মুলত ব্লুজ ঘরানার গান করি। এবারের ট্র্যাকটিতে একটি নারী কন্ঠ প্রয়োজন ছিল। খুঁজতে গিয়ে মনে হলো আমাদের গানের সাথে ন্যান্সির গলাই সবচেয়ে ভালো মানাবে। তাই তাকে প্রস্তাব দিলাম। আনন্দের জায়গা হলো, সে ও আগ্রহী হল আমাদের সাথে কাজ করতে। তাই একজোট হয়ে এবারের ঈদে আমাদের একসাথে কাজ করা। এতে শ্রোতারা নতুন কিছুর স্বাদ পাবে।’

এই দ্বৈত গানটি ছাড়াও কর্মক্ষেত্রে মহিলা পেশাজীবীদের যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ স্বরুপ এই ঈদে ‘কর্পোরেট প্রেম’ নামে মুখোশের আরও একটি গানের মিউজিক ভিডিও আসছে ইউটিউবে।

মাঝের ১৭ বছর গানের সঙ্গে না থাকলেও গত কয়েক বছর ধরেই ধারাবাহিকভাবে নতুন গান আনছে ‘মুখোশ’। এতদিনের না থাকাটাকে পুশিয়ে নেবার তাগিদ থেকেই গত ডিসেম্বরে এনেছে তাদের দ্বিতীয় অ্যালবাম ‘ডিজিটাল ভালোবাসা’। চলতি বছরের ভালোবাসা দিবসে বের করেছে তৃতীয় অ্যালবাম ‘চেনামুখ’। পহেলা বৈশাখ উপলক্ষ্যে ব্যান্ডটি রিলিজ দেয় তাদের সিঙ্গেল অডিও ট্র্যাক ‘ফ্যাশনেবল বৈশাখ’।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য