আগামী নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া মধ্যবর্তী নির্বাচনের জন্য প্রার্থী বাছাই করেছেন আটটি অঙ্গরাজ্যের ভোটাররা। মঙ্গলবার (৫ জুন) ক্যালিফোর্নিয়া, মন্টানা, আলাবামা, আইওয়া, মিসিসিপি, নিউ জার্সি, নিউ মেক্সিকো এবং সাউথ ডাকোটাতে অনুষ্ঠিত প্রাইমারি নির্বাচনের মধ্য দিয়ে প্রার্থীদের বাছাই করা হয়। মধ্যবর্তী নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকান দুই দলের জন্যই ক্যালিফোর্নিয়া ও নিউ জার্সির ফলাফল গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, মার্কিন কংগ্রেসের নিম্ন কক্ষ- প্রতিনিধি সভার ৪৩৫টি আসনের মধ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনের আশা করছে ডেমোক্র্যাটরা। শুধু ক্যালিফোর্নিয়া ও নিউ জার্সিতে রিপাবলিকানদের দখলে থাকা আসনগুলোর মধ্যে ১২টিরও বেশি আসনকে টার্গেট করেছে তারা।

প্রতিনিধি পরিষদের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারলে রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এজেন্ডাগুলোকে আটকে দিতে পারবে ডেমোক্র্যাটরা। যথেষ্ট ভিত্তি আছে বলে মনে করলে ডেমোক্র্যাটরা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অভিশংসনের প্রচেষ্টাও জোরদার করতে পারবে। সেটা হতে পারে মার্কিন নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপ নিয়ে রবার্ট মুলারের চলমান তদন্তের ভিত্তিতে অথবা অন্য কোনও কারণে।

মন্টক্লেয়ার স্টেট ইউনিভার্সিটির রাষ্ট্রবিজ্ঞানের শিক্ষক ব্রিজিড হ্যারিসন বলেন, ‘নিউ জার্সিকে বাদ দিয়ে ডেমোক্র্যাটরা হাউসের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারবে বলে মনে হয় না।’

নিউ জার্সির দক্ষিণাঞ্চলে দীর্ঘদিনের রিপাবলিকান প্রার্থীর অবসরের কারণে ডেমোক্র্যাটরা সেখানে সূচনা করতে পেরেছে। ওই আসনে রক্ষণশীল ডেমোক্র্যাট এবং রাজ্যের সিনেটর জেফ ভান ড্রিউ বামপন্থী প্রার্থীদের তুলনায় এগিয়ে আছেন। মধ্যবর্তী নির্বাচনে রিপাবলিকান প্রার্থী সেথ গ্রসম্যানের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে তার।

নিউ জার্সির একটি এলাকায় স্বতন্ত্র লিবারেল গ্রুপগুলোর সমর্থিত দুই ডেমোক্র্যাটের চেয়ে সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার প্রশাসনের কর্মকর্তা টম মালিনৌস্কি বেশ এগিয়ে রয়েছেন। টম মালিনৌস্কি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন সংস্কারপন্থী রিপাবলিকান লিওনার্ড ল্যান্সের সঙ্গে। ধারণা করা হচ্ছে, তাদের দুইজনের মধ্যে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে। ওই রাজ্যে রিপাবলিকানদের দখলে থাকা আরও দুইটি আসনে জয় পাওয়ার আশা করছে ডেমোক্র্যাটরা।

নিউ জার্সির মতো করেই মধ্যবর্তী নির্বাচনে ক্যালিফোর্নিয়াকেও গুরুত্বপূর্ণ বলে বিবেচনা করা হচ্ছে। ডেমোক্র্যাটদের লক্ষ্য হলো, রিপাবলিকানদের নিয়ন্ত্রণে থাকা এখানকার ১৪টি আসনের মধ্যে ১০টিকে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেওয়া।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য