পৃথিবীর বৃহত্তর উন্মুক্ত কারাগার গাজা উপত্যকায় মে মাসে জন্ম হয়েছে ২,৭৮৬ শিশুর। এইমাসে সেখানে নিহত হয়েছেন ৩১৯ জন। নিহতদের ৬৫ শতাংশ পুরুষ।

গাজার স্বরাষ্ট্র ও জাতীয় নিরাপত্তা মন্ত্রণালয় সূত্র এই পরিসংখ্যান জানিয়েছে। নিহতদের মধ্যে ৮৩ ফিলিস্তিনি প্রাণ হারিয়েছেন ইসরায়েলবিরোধী বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে গিয়ে।

ফিলিস্তিনের ভূমি দখল করে ১৯৪৮ সালের ১৫ মে প্রতিষ্ঠিত হয় ইসরায়েল নামের রাষ্ট্র। ১৯৭৬ সালের ৩০ মার্চ ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলে ইহুদি বসতি নির্মাণের প্রতিবাদ করায় ছয় ফিলিস্তিনিকে হত্যা করা হয়।

পরের বছর থেকেই ৩০ মার্চ থেকে ১৫ মে পর্যন্ত পরবর্তী ছয় সপ্তাহকে ভূমি দিবস হিসেবে পালন করে আসছে ফিলিস্তিনিরা। এবারের কর্মসূচি সফল করতে গিয়ে মে মাসে প্রাণ হারিয়েছেন ৭৯ ফিলিস্তিনি।

গ্রেট রিটার্ন মার্চ নামে অনুষ্ঠিত এবারের সেই বিক্ষোভ কর্মসূচির শেষদিনের আগে (১৪ মে) জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভ জোরালো হয়ে উঠলে একদিনেই ৬৫ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করে ইসরায়েলি বাহিনী।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া হিসাব অনুযায়ী মে মাসে ইসরায়েলি বাহিনীর গুলিতে প্রাণ হারিয়েছেন ৭৯ ফিলিস্তিনি। এদের মধ্যে ১০ জন শিশু। বাকীরা পুরুষ।

জন্ম নেওয়া ২,৭৮৬ শিশুর মধ্যেও মেয়ে শিশুর সংখ্যা বেশি। ১৬৫২ নারী শিশুর সঙ্গে এই মাসে জন্ম হয়েছে ১১৩৪ ছেলে শিশুর।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য