বিদেশে কর্মরত এক ফিলিপিনো নারীর ঠোটে চুমু খেয়ে বেশ বিপাকে পড়েছেন ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তে। রবিবার দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এমন কাণ্ড করেন তিনি। এর পর থেকে তার বিরুদ্ধে নিন্দার ঝড় উঠেছে।

সরাসরি সম্প্রচারিত ওই অনুষ্ঠানে দেখা যায়, প্রবাসী কর্মীদের সঙ্গে কথা বলার সময় হঠাৎ দুই নারীকে মঞ্চে ডেকে নেন দুতের্তে। তবে এতেই ক্ষান্ত হননি তিনি। তাদের একজনকে তার ঠোটে ঠোট লাগিয়ে চুমু খাওয়ার জন্য প্রচেষ্টা চালান তিনি। অবশেষে ওই নারীকে প্ররোচিত করতে সফল হন দুর্তেতে।

দৃশ্যটি উপস্থিত ফিলিপিনো কর্মীদের ব্যাপক হাস্যরসের খোরাক জোগালেও, সেটিকে স্বাভাবিক চোখে দেখছেন না ফিলিপাইনের অধিকার কর্মীরা। দেশটির মানবাধিকার বিষয়ক সংগঠন গার্বিয়েলা এটিকে ‘প্রেসিডেন্টের বিকৃত রুচির কুশলী মঞ্চায়ন’ হিসেবে অভিহিত করেছেন। তারা আরো বলছেন, নারীদের সঙ্গে এই প্রথম এমন আচরণ করেননি দুতের্তে।

দুতের্তের বিরোধী দলীয় সিনেটর রিসা হোন্টিভেরস এটিকে সরাসরি যৌন হয়রানির সঙ্গে তুলনা করেছেন। তিনি আরো বলেছেন, প্রকাশ্য অনুষ্ঠানে দুর্তেতে যা করেছেন তা হচ্ছে, ‘সামন্ত রাজার আচরণ।’ বিবিসি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য