সারাদেশের ন্যায় গতকাল শুক্রবার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ৫টি কেন্দ্র থেকে পরীক্ষার্থীর ভাইসহ ৮ পরীক্ষার্থীকে গ্রেফতার করেছেন কুড়িগ্রাম থানা পুলিশ। এসময় আটককৃতদের কাছ থেকে ৭টি মোবাইল ফোন, সিম, একটি মাস্টার কার্ডসহ কানে শোনার একটি সুক্ষè ডিভাইস উদ্ধার করা হয়।

আটককৃতরা হলেন,সদরের পৌর এলাকার সবুজ পাড়ার হায়দার আলীর মেয়ে হাবিবা সুলতানা, হাসপাতাল পাড়ার ওয়াহেদ আলীর মেয়ে ওয়ারিন্নাহার,নাজিরা মুন্সি পাড়ার মকবুল হোসেনের মেয়ে মৌসুমী বেগম,নাজিরা কামার পাড়ার ফিকির উদ্দিন মজিবের পুত্র আব্দুর রহিম রাসেল, আব্দুল জলিলের দুই পুত্র আব্দুল্লাহ আল ফারুক ও শিবলী নোমান,রাজারহাট উপজেলার চাকিরপশার এলাকার বদিউজ্জামানের মেয়ে ফাতেমা বেগম,এবং চিলমারীর বহরের ভিটার জয়নাল আবেদীনের মেয়ে শাহানাজ খাতুন।

আটকের ঘটনা নিশ্চিত করে জেলা প্রশাসক মোছাঃ সুলতানা পারভীন জানান,নিয়োগ পরীক্ষার জন্য সরকার কঠোর অবস্থান গ্রহণ করেছেন। তারই ধারাবাহিকতায় সহকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার করে অসাধু উপায়ে পরীক্ষা দেবার অভিযোগে ৮জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার স্বপন কুমার রায় চৌধুরী বলেন, ২০১৪সালের সহকারি শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে কুড়িগ্রামে ২৪হাজার ৯১৩জন পরীক্ষার্থী আবেদন করেন।
এদিকে উলিপুরের পরিক্ষা কেন্দ্রগুলোতে ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইস ব্যবহার করার খবর পাওয়া গেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য