মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) থেকে: নীলফামারীর সৈয়দপুরে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইসসহ ৮ পরীক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে। শুক্রবার (১ জুন) শহরের বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটকৃতরা হলেন, চিরিরবন্দর উপজেলার জিয়াউর রহমানের স্ত্রী আরিফা নাজনীন (২৬), কিশোরগঞ্জের রণচন্ডি এলাকার আরেফুজ্জামানের স্ত্রী লালভী আক্তার (২৪), একই উপজেলার বালাপাড়া এলাকার প্রমোদ চন্দ্র রায়ের কন্যা পলি রায় (২৬), আকাশকুড়ি এলাকার আবুল কালাম আজাদের কন্যা তাহিরা পারভীন (২৪), মুশা এলাকার সুমনের স্ত্রী উম্মে হাবিবা (২৪), ডিমলা উপজেলার নাউতারা এলাকার আবুজার রহমানের পুত্র আরাফাত সিদ্দিক (২৯), কিশোরগঞ্জের বাজে ডুমুরিয়া এলাকার ইয়াছিন আলীর পুত্র মিজান আহমেদ (২৮) ও নীলফামারী সদর উপজেলার টুপামারী এলাকার আতিয়ার রহমানের পুত্র সৈয়দপুর লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজের সহকারী শিক্ষক আলমগীর হোসেন (২৯)। আটককৃতরা সৈয়দপুর থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।

জানা গেছে, ক্যান্টপাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে ৪, লায়ন্স স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে ১, পাইলট বালিকা বিদ্যালয় ও কলেজ কেন্দ্রে ১, সৈয়দপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে ১ ও সৈয়দপুর সরকারী কারিগরি মহাবিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে ১জনকে আটক করা হয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সৈয়দপুর সার্কেল) অশোক কুমার পাল বলেন, অভিযোগ পেলে আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ বজলুর রশীদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আটককৃতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পুলিশে দেয়া হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য