কুড়িগ্রামে ফুলবাড়ী উপজেলায় ধরলা নদীর উপর দ্বিতীয় গার্ডার ব্রীজটি আগামি ৩ জুন উদ্বোধন করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ব্রীজটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন বলে জেলা প্রশাসক মোছা: সুলতানা পারভীন বিষিয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর আগে গত ২৮ এপ্রিল সর্বসাধাররে সুবিধার্তে ব্রীজটি চলাচলের জন্য সাময়িকভাবে খুলে দেয়া হয়েছিল।

আগামি ৩জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিকেল ৩টায় সেটি খুলে দিলে কুড়িগ্রাম জেলার সাথে ধরলা নদী দ্বারা বিচ্ছিন্ন তিন উপজেলার প্রায় ৮ লাখ মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে ব্যাপক ভূমিকা রাখবে।

উল্লেখ্য, এলজিইডি’র অধীনে দ্বিতীয় ধরলা সেতু ২০১২ সালের ২০ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলা ও লালমনিরহাট সদর উপজেলার মধ্যবর্তী স্থানে কুলাঘাট নামক স্থানে ব্রীজটি নির্মাণের ঘোষণা দেন।

২০১৪ সালে সিমপ্লেক্স ও নাভানা কনস্ট্রাকশন গ্রুপের সাথে চুক্তি সম্পাদিত হয় । এটি নির্মাণে এলজিইডি ১৩ একর জমি অধিগ্রহন করে। নির্মাণে ব্যয় হয় ১৯১কোটি ২৮লাখ ৬৩ হাজার টাকা। ৯৫০ মিটার দীর্ঘ ও ৩২ মিটার চওড়া ব্রীজে ১৯টি স্প্যান এবং ৯৫টি গার্ডার রয়েছে।

এছাড়া ব্রীজের পূর্ব-পশ্চিম অংশে ২ হাজার ৮৭২ মিটার এপ্রোচ রোডের কাজও সম্পন্ন করা হয়। এই ব্রীজটি জেলার কৃষি ভিত্তিক মানুষের জীবনমান উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখবে। এছাড়াও ভুরুঙ্গামারী, নাগেশ^রী ও ফুলবাড়ী উপজেলার সাথে ঢাকার দুরত্ব কমবে প্রায় ১০০কি.মি.। সিমপ্লেক্স ও নাভানা কনস্ট্রাকশন গ্রুপ গত ডিসেম্বরে মাসেই ব্রীজের কাজ সম্পন্ন করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য