এবারে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার খগাখড়িবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদে কোটি টাকার উপরে বাজেট ঘোষনায় এলাকায় উন্নয়নের ছোয়া লেগেছে বলে সর্বসাধারণের মধ্যে “টক অব দ্যা” ইউনিয়নে পরিণত হয়েছে।

বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড নিয়ে ইউনিয়নের সর্বত্রই চলছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়।

কেউ বলছে এত টাকা উন্নয়নের কথা বলে বাজেট ঘোষনা করলেও তা কখনওই বাজেট অনুযায়ী উন্নয়ন চোখে পড়েনি। বাজেট ঘোষনাকে কেন্দ্র করে চায়ের দোকানগুলি এখন সরব। তবে এবারে কাজ হতেও পারে বলে এলাকায় অনেকেই ধারণা করছেন।

জানা যায়,২৫ মে শুক্রবার ২০১৮-২০১৯ ইং অর্থ বছরের ১ কোটি ৬৬ লক্ষ ৫০ হাজার ৮ শত ৭৩ টাকা সম্ভব্য আয় ও ১ কোটি ৬৬ লক্ষ ৪৬ হাজার ৩ শত ২৯ টাকা সম্ভব্য ব্যয় এবং ৪ হাজার ৫ শত ৪৪ টাকা বেশি ধরে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে এ উম্মুক্ত বাজেট ঘোষনা কবেন ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম লিথন।

বাজেট ঘোষানার সময় ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, গেল বছর সময় মত বাজেট অনুযায়ী কাজগুলি এলাকাবাসীর সহযোগীতায় সম্পন্ন করতে পেরেছি। এবারে আরো বেশী আপনাদের সহযোগীতা চাই। সেই সাথে আপনাদের সকলকেই ইউনিয়নের টেক্স সময়মত পরিশোধ করতে হবে। তা না হলে এত বড় বাজেট সম্পন্ন করতে ইউপি’কে পড়তে হয় হিমসীমে।

এ উম্মুক্ত বাজেট ঘোষনা অনুষ্ঠানে ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম লিথন এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডিমলা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা তবিবুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা মজিবুর রহমান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছা. আয়শা সিদ্দীকা, ইউপি’র সচিব মোবাশ্বের আলম, বিভিন্ন ওর্য়াডের ইউপি সদস্য ও মহিলা সদস্যগণ, গ্রাম পুলিশ, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ প্রমূখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য