দিনাজপুর সংবাদাতাঃ চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে দুই ত্রিপুরা কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যার প্রতিবাদ, ধর্ষক ও হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে দিনাজপুরে মানববন্ধন করেছে হিউম্যান রাইটস ডিফেন্ডার্স ফোরাম (এইচআরডি), সারজোম বাহা সাংস্কৃতিক দল ও আদিবাসী যুব পরিষদ (আইইডি) এর নেতৃবৃন্দ।

২৬ মে শনিবার সকাল ১১ টায় দিনাজপুর প্রেস ক্লাবের সম্মুখ সড়কে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, দেশে নারী নির্যাতন, ধর্ষণ হত্যার ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হওয়ায় পাহাড় ও সমতলে নারী ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনা অব্যাহত আছে। এটি দিন দিন বাড়ছে। তার ধারাবাহিকতায় সীতাকুন্ডে দুই ত্রিপুরা কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা সীতাকুন্ডের ঘটনায় নিন্দা প্রতিবাদ জানিয়ে জড়িতদের দ্রুত দৃষ্টাস্তমূলক শাস্তির দাবি করেন। বর্তমান সরকার যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের ক্ষেত্রে যেমন দৃষ্টান্ত দেখিয়েছে, তেমনি এ ধর্ষক ও খুনিতের বিচারের ক্ষেত্রেও এ দৃষ্টান্ত দেখানোর দাবি করেন বক্তারা।

আদিবাসী যুব পরিষদের সভাপতি হরেন্দ্র নাথ সিং এর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন দিনাজপুর জেলা সংসদের সাধারণ সম্পাদক জামিরুল ইসলাম, কমিউনিস্টি পার্টি নেতা এস এম চন্দন, সারজোম বাহা সাংস্কৃতিক দলের সভাপতি নেলশন মার্ডী, যুব ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক অমৃত কুমারী রায়, খেলাঘর আসর দিনাজপুর এর সাধারন সম্পাদক নূরুল মতিন সৈকত, বাংলাদেশ কৃষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আশিষ কুমার মুন্না, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সুলতান কামাল উদ্দীন বাচ্চু, জাতীয় আদিবাসী পরিষদের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা শিবানী উরাও, এইচআরডি দিনাজপুর প্রতিনিধি শ্রীমন হাসদা।

মানববন্ধনটি সঞ্চালনা করেন আদিবাসী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আলবার্ট টুডু।

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডের মহাদেবপুর ত্রিপুরা পাড়ায় পলিন ত্রিপুরার মেয়ে সুখলতি ত্রিপুরা (১৫) ও সুমন ত্রিপুরার মেয়ে ছবি রাণী ত্রিপুরা (১১) কে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য