২০১৭ সাল থেকে এখন পর্যন্ত সৌদি আরবে চাকরি হারিয়েছেন ৭ লাখ ৮৫ হাজার বিদেশি শ্রমিক। দেশটির সামাজিক নিরাপত্তা বিষয়ক রাষ্ট্রীয় সংস্থা জেনারেল অর্গানাইজেশন ফর সোশ্যাল ইন্সুরেন্সের করা এক জরিপে এই তথ্য জানা যায়।

সংস্থাটি জানায়, চলতি বছর প্রথম তিন মাসেই বিদেশি শ্রমিকের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৭৭ লাখ ১০ হাজারে। ২০১৬ সালে যা ছিল ৮৪ লাখ ৯৫ হাজার। তবে চলতি বছর বেড়েছে সৌদি শ্রমিকের সংখ্যা। প্রথম তিন মাসে এই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ লাখ ৬০ হাজার। ২০১৬ সালে ছিল ১৬ লাখ ৮০ হাজার।

মধ্যপ্রাচ্যের সংবাদ পর্যবেক্ষণের ব্রিটিশ ওয়েবসাইট মিডল ইস্ট মনিটর জানায়, স্থানীয়দের কাজের সুযোগ বৃদ্ধি করতে সৌদি আরবের সিদ্ধান্তের প্রতিফলনই ঘটেছে এই পরিসংখ্যানে। গত দুই বছরে চাকরি হারিয়েছেন অনেক বিদেশি শ্রমিক।

সৌদি সরকার বেশ কয়েকটি খাতে দেশি কর্মী নিয়োগের বিষয়টি জোর দিয়েছেন। কারণ সেখানে বেকারত্বের হার বেড়ে দাঁড়িয়েছিল ১২.৮ শতাংশ। রিটেইল সেক্টরে শুধু সৌদি নাগরিকদের কাজ করার অধিকারও নিশ্চিত করেছে তারা। আগামী ১১ সেপ্টেম্বর থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

গত বছর কর্মক্ষেত্রে দেশীয় শ্রমিকদের বেশি পরিমাণে নিয়োগের ব্যবস্থা করতে বিদেশি শ্রমিকদের ওপর কঠোর বিধি-নিষেধ আরোপের পরিকল্পনা নেয় সৌদি আরব। দেশটির সরকার নতুন কিছু অভিবাসী আইন প্রণয়নের লক্ষ্যে এমন পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বলে যার ফলে সে দেশে প্রায় ৫০ লাখ অভিবাসীর এক বিরাট অংশকে বহিষ্কার করা হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছিল।।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য