গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার হামিদা খাতুন মাধ্যমিক (এসএসসি) ভোকেশনাল স্কুলে প্রধান শিক্ষকের দুর্নীতির প্রতিবাদে বিদ্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে শিক্ষার্থীরা।

জানা গেছে, ২০১৭ সালে এস.এস.সি (ভোকেশনাল) নবম শ্রেণির বোর্ড সমাপনী পরীক্ষায় বিভিন্ন ট্রেডে উক্ত বিদ্যালয় হতে ৩৬ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে। পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হলে উক্ত বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষার কোন ফলাফল না পাওয়ায় হতাশাগ্রস্থ হয়ে পড়ে।

এ নিয়ে প্রধান শিক্ষক শাহানা আক্তারের সাথে পরীক্ষার্থীরা যোগাযোগ করলে তিনি বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি প্রদর্শন করে আসতে থাকেন। এ অবস্থা চলতে থাকায় নিরূপায় হয়ে গত একমাস থেকে উক্ত বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষসহ শ্রেণী কক্ষগুলোতে তালা ঝুলিয়ে রেখেছে শিক্ষার্থীরা।

এতেও বিষয়টি কোন সমাধান না আসায় গত ১৮/০৪/১৮ ইং তারিখে জেলা প্রশাসকসহ শিক্ষা বিভাগের বিভিন্ন দপ্তরে শিক্ষার্থীরা লিখিত অভিযোগ করে। এদিকে জেলা প্রশাসক বিষয়টি সরেজমিনে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য গত ২৪/৪/১৮ উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম গোলাম কিবরিয়াকে নিদের্শ দেন। নিদের্শের ২০ দিন অতিবাহিত হলেও তদন্ত অনুষ্ঠিত না হওয়ায় চরম অনিশ্চিয়তার মধ্যে দিনাতিপাত করছে।

এনিয়ে প্রধান শিক্ষক শাহানার সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে উপজেলার নির্বাহী অফিসার এস.এম.গোলাম কিবরিয়ার সাথে কথা হলে তিনি জানান বিষয়টি উপজেলা মাধ্যমিক অফিসার মাহাবুবুল ইসলামকে তদন্ত সাপেক্ষে প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জানান তদন্তের জন্য পত্র প্রেরণ করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য