বিরল (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের বিরলে দু’টি পৃথক আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনায় থানায় পৃথক পৃথক দুটি ইউডি মাললা হয়েছে।

জানা গেছে, গতকাল বুধবার দুপুরে উপজেলার ধর্মপুর ইউপি’র বনগাঁও গ্রামের শুভ্র সরকারের ৮ম শ্রেণি পড়ুয়া কন্যা নুপুর সরকার (১৪) শয়ন ঘরের বর্গার সাথে গলায় পরনের ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। তবে আত্মহত্যার সঠিক কারণ জানা যায়নি।

অপরদিকে, রাজারামপুর ইউপি’র পশ্চিম রাজারামপুর গ্রামের শ্যামা চরণ রায়ের পুত্র দীনেশ চন্দ্র রায় (৩৫) গোয়াল ঘরের বর্গার সাথে গলায় রঁশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে। সকালে পরিবারের লোকজন তাঁর লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে সংবাদ দিলে থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

নিহতের পরিবার জানায় দীর্ঘদিন যাবৎ মানসিক সমস্যার কারণে তাঁর চিকিৎসা চলছিল। বিকালে থানার ওসি (তদন্ত) আওলাদ হোসেন জানান, এ ব্যাপারে নুপুরের বড়কাকা অরুণ সরকার ও দীনেশ এর বড়ভাই মদন চন্দ্র রায় পৃথক পৃথক অভিযোগ দায়ের করেছেন। লাশের সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুতের কাজ চলছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য