ফ্রান্সের সাগরপাড়ের শহর কানে শুরু হলো কান চলচ্চিত্র উৎসব। বিশ্ব চলচ্চিত্রের সবচেয়ে আরাধ্য এই আয়োজনের উদ্বোধন ঘোষণা করলেন মার্কিন চলচ্চিত্রকার মার্টিন স্করসেসি ও এবারের আসরের প্রতিযোগিতা বিভাগের বিচারক কেট ব্ল্যানচেট।

মঙ্গলবার (৮ মে) রাত ৮টা ১০ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টা ১০ মিনিট) পালে দো ফেস্টিভ্যাল ভবনের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে পর্দা উঠলো কানের ৭১তম আসরের। শুরুতে ফ্রেঞ্চ নিউওয়েভের অন্যতম রূপকার ফরাসি চলচ্চিত্রকার জ্যঁ-লুক গদারের ‘পিয়েরো দ্য ম্যাডম্যান’ (১৯৬৫) ছবির একটি দৃশ্য ভেসে ওঠে পর্দায়। এই চলচ্চিত্রের একটি চুম্বন দৃশ্য নিয়েই সাজানো হয়েছে এবারের উৎসবের অফিসিয়াল পোস্টার।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালক (মাস্টার অব সিরিমনিস) ছিলেন এদুয়ার্দ বেয়া। একদিকে পিয়ানোতে সুর তুলছেন বর্ষীয়ান ফরাসি সংগীতশিল্পী জেরার্ড দেগের, ওদিকে অনর্গল বলে যাচ্ছেন উপস্থাপক। এরপর মঞ্চে আসেন কান উৎসবের পরিচালক থিয়েরি ফ্রেমো। তিনি একে একে মঞ্চে ডাকেন প্রতিযোগিতা বিভাগের বিচারকদের।

প্রথমে আসেন ‘ব্লেড রানার ২০৪৯’ ছবির পরিচালক ডেনিস ভিলেন্যুভ। তারপর একে একে মঞ্চ আলোকিত করেন ‘ক্রাউচিং টাইগার হিডেন ড্রাগন’ তারকা চ্যাং চেন, ‘সেলমা’ ছবির পরিচালক আভা ডুভারনে, ফরাসি পরিচালক রবার্ট গেদিজিয়ন, ‘টোয়াইলাইট’ তারকা ক্রিস্টেন স্টুয়ার্ট, রুশ পরিচালক আন্দ্রে জিভিয়াজিন্তসেভ, জেমস বন্ড সিরিজের ‘স্পেক্টর’ ও ‘মিশন ইমপসিবল’ সিরিজের ফরাসি অভিনেত্রী লেয়া সেদু, বুরুন্ডির গায়িকা খাজা নিন।

এরপর প্রতিযোগিতা বিভাগের সভাপতি অস্ট্রেলীয় অভিনেত্রী কেট ব্ল্যানচেট অভিনীত বিভিন্ন ছবির অংশবিশেষ দেখানো হয়। তারপর মঞ্চে হাজির হন প্রধান বিচারক। অতিথিরা সবাই দাঁড়িয়ে তাকে সম্মান প্রদর্শন করেন। ৪৮ বছর বয়সী এই তারকাকে নির্ধারিত আসন পর্যন্ত এগিয়ে দেন থিয়েরি ফ্রেমো।

অনুষ্ঠানে প্রতিযোগিতা বিভাগে নির্বাচিত ২১টি ছবির পাশাপাশি প্রতিযোগিতা বিভাগের বাইরে, আঁ সার্তেন রিগার্দ ও মিডনাইট স্ক্রিনিং বিভাগে নির্বাচিত ছবির অংশবিশেষ দেখানো হয়। তারপর ছিল গান। ফরাসি গায়িকা জুলিয়েট আহমানে পরিবেশন করেন ১৯৬৯ সালে অস্কারে সেরা মৌলিক গানের ‍পুরস্কার জেতা মিচেল লেগ্র্যান্ডের সুর করা ‘দ্য মিলস অব মাই হার্ট’।

কানের সভাপতি পিয়ের লেসকিউরের সঙ্গে মঞ্চের নিচে নেমে গ্লাসে চুমুক দিতে দিতে কথা বলেন মাস্টার অব সিরিমনিস। তারা প্রত্যেকেই ফরাসি ভাষায় কথা বলেছেন। তাই অামন্ত্রিত অতিথিদের জন্য ছিল ট্রান্সলেটর যন্ত্র। তাদের মধ্যে ছিলেন পৃথিবী গ্রহের নামিদামি তারকা ও চলচ্চিত্র কলাকুশলী।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে দুবারের অস্কারজয়ী আসগর ফারহাদির ‘এভরিবডি নৌস’ ছবির প্রিমিয়ার হয়। এতে অভিনয় করেছেন পেনেলোপি ক্রুজ ও হাভিয়ার বারদেম। এটিসহ মোট ২১টি ছবি এবার লড়বে কানের সর্বোচ্চ পুরস্কার পাম দ’রের জন্য। ১২ দিনের এই মহাযজ্ঞ চলবে ১৯ মে পর্যন্ত।

অন্যদিকে সাল দুবুসি থিয়েটারে সাংবাদিকদের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও ‘এভরিবডি নৌস’ দেখানো হয় একই সময়ে। রাত সাড়ে ৯টায় সাল বাজিনেও সাংবাদিকদের জন্য ছিল ছবিটির প্রদর্শনী।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য