আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি : লালমনিরহাটের সদর উপজেলার হারাটি ইউনিয়নে হিরামানিক গ্রামের প্রথম শ্রেণির এক ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে।

মঙ্গলবার (১লা মে) বিকেলে ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রীকে মুমূর্ষু অবস্থায় লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে নিজেদের পাকা ধান ক্ষেতে শিশুটি হাঁস তারাতে যায়। এ সময় লম্পট মহানন্দ (৪০) শিশুটিকে ফুসলিয়ে পাশের ভুট্টাখেতে নিয়ে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে রক্তাক্ত অবস্থায় রেখে পালিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পর ভুট্টাখেত থেকে কান্নার শব্দ শুনে কয়েকজন এগিয়ে যায়।

পরে মুমূর্ষু ও রক্তাক্ত অবস্থায় ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করে স্থানীয়রা। বর্তমানে শিশুটি হাসপাতালের গাইনী বিভাগে সঙ্গাহীন অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে।

লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ( আর এম ও) ডাঃ মঞ্জুর মোর্শদ দোলন জানান, প্রাথমিক অবস্থায় শিশুটিকে ধর্ষণ করা হয়েছ বলেই ধারনা করা হচ্ছে। তারপরও মেডিকেল করা হলে বিষয়টি পুরোপরি জানা যাবে। তবে শিশুটির শরীরে কোন আছর নেই।

লালমনিরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি) জানান, এ রকম একটি ঘটনা শোঁনার পর হাসপাতালে অফিসার পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে শিশুটির পরিবার অভযোগ দিলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য