ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে রোববার বলেছেন, কুয়েতে ফিলিপাইনের কর্মী পাঠানোর ওপর স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এরআগে দেশটিতে কর্মী পাঠানোর ক্ষেত্রে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল।

কুয়েতে এক ফিলিপিনো গৃহকর্মীর লাশ ফ্রিজে পাওয়ার পর ফেব্রুয়ারি মাসে দুতার্তে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিতে কর্মী নিয়োগের ওপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। ওই গৃহকর্মীকে হত্যা করা হয়েছিল।

এটাকে কেন্দ্র করে গত সপ্তাহে কুয়েত কর্তৃপক্ষ ম্যানিলার কূটনীতিককে বহিষ্কারের নির্দেশ দিলে সংকট আরো ঘনীভূত হয়।

কুয়েতে অবস্থিত ফিলিপাইন দূতাবাসের এক স্টাফ দেশটিতে নির্যাতনের শিকার হওয়া ফিলিপিনো কর্মীদের পালাতে সহায়তার ভিডিওচিত্র প্রকাশিত হওয়ার প্রেক্ষিতে এ বহিষ্কার আদেশ দেয়া হয়।

এর আগে দুই দেশের মধ্যে শ্রম চুক্তির ফলে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞাটি তুলে নেয়ার ক্ষেত্র তৈরি হয়েছিল। কিন্তু সম্প্রতি উত্তেজনা বেড়ে যাওয়ায় নিষেধাজ্ঞাটি প্রত্যাহার করে নেয়ার বিষয়টি অনিশ্চিত হয়ে পড়লো।

কুয়েতে প্রায় ২ লাখ ৬২ হাজার ফিলিপিনো কর্মী রয়েছে। এদের প্রায় ৬০ শতাংশ গৃহকর্মী।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য