বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণে আমস্টারডামের সিফোল বিমান বন্দরের সব ধরনের কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।

স্থানীয় সময় রোববার ভোরের দিকে ইউরোপের অন্যতম ব্যস্ত এ বিমানবন্দরের কার্যক্রমে বড় ধরনের বিঘ্ন ঘটে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

চেক-ইন কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এবং প্রধান হলে অপেক্ষমান যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড়ের পর ‘ভ্রমণকারীদের নিরাপত্তার কথা বিবেচনায়’ সিফোল কর্তৃপক্ষ রাত ৩টার দিকে বিমানবন্দর অভিমুখী সব সড়ক ও রেল যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়।

বিদ্যুৎ সংযোগ স্বাভাবিক হওয়ার পর ভোর সাড়ে চারটা নাগাদ যোগাযোগব্যবস্থা সচল হলেও মাঝখানের এই বিভ্রাট ‘সারাদিনের বিমান চলাচলে বড় ধরনের জট’ সৃষ্টি করবে বলে আশঙ্কা বিমানবন্দরের মুখপাত্র জ্যাকো বার্টেলসের।

তিনি জানান, রোববার সকালে কর্তৃপক্ষ বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণে আটকে পড়া বিমানগুলোর উড্ডয়নকেই বেশি অগ্রাধিকার দিচ্ছে।

সিফোল বিমানবন্দরে প্রতি ঘণ্টায় মাত্র ১০টি বিমানের অবতরণের সুযোগ থাকায়, এই জট অন্যান্য বিমানবন্দর থেকে আমস্টারডামের দিকে আসা বিমানগুলোকেও সমস্যায় ফেলবে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

যাত্রীসংখ্যা বিবেচনায় লন্ডনের হিথ্রো এবং প্যারিসের শার্ল দ্য গলের পরই সিফোলকে ইউরোপের তৃতীয় ব্যস্ত বিমানবন্দর হিসেবে গণ্য করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য