অবরুদ্ধ গাজায় গ্রেট মার্চ অব রিটার্ন টানা বিক্ষোভের পঞ্চম সপ্তাহে শুক্রবার ইসরায়েলি সেনাদের গুলিতে আরও তিন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। ৩০ মার্চ শুরু হওয়া টানা এই বিক্ষোভে ইসরায়েলি গুলিতে এ পর্যন্ত ৪৫ জন ফিলিস্তিনি নিহত ও ছয় সহস্রাধিক আহত হয়েছেন।

তবে কোনও ইসরায়েলি আহত হওয়ারও ঘটনা ঘটেনি। শুক্রবারের বিক্ষোভে নিহতের সংখ্যা নিশ্চিত করে গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বিক্ষোভের সময় তিন শতাধিক ফিলিস্তিনি গুলিতে বা টিয়ার গ্যাসের কারণে আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, শুক্রবার বরাবরের মতো সীমান্তে পাঁচটি স্থানে জড়ো হয়েছিলেন ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীরা। তবে গত সপ্তাহের চেয়ে বিক্ষোভকারীর সংখ্যা কম থাকলেও জোরদার ছিল।

কয়েকশ যুবক টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে সীমান্তের ওপারে ইসরায়েলি সেনাদের দিকে পাথর ছুড়ে। ইসরায়েলি সেনারা টিয়ার গ্যাস ও তাজা গুলি ছুড়ে পাল্টা জবাব দেয়।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, নিহত চার জনের মধ্যে দুজনকে শনাক্ত করা যায়নি। গাজা সেন্টার ফর মিডিয়া ফ্রিডম জানায়, আহতদের মধ্যে ১৮জন চিকিৎসাকর্মী ও সাংবাদিক রয়েছেন।

গাজা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আশরাফ আল-কিদরা জানান, ইসরায়েলি সেনারা স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রকে দুই বার লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছে। আহতদের অনেকেই শ্বাসকষ্ট, বমি ও খিঁচুনিতে আক্রান্ত হয়েছেন।

১৯৭৬ সালের ৩০ মার্চ ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলে ফিলিস্তিনের ভূমি দখল করে ইহুদি বসতি নির্মাণের প্রতিবাদ করায় ছয় ফিলিস্তিনিকে হত্যা করা হয়। পরের বছর থেকেই ৩০ মার্চ থেকে ১৫ মে পর্যন্ত পরবর্তী ছয় সপ্তাহকে ভূমি দিবস হিসেবে পালন করে আসছে ফিলিস্তিনিরা।

আল জাজিরার খবর অনুযায়ী, ৩০ মার্চ শুরু হওয়া ভূমি দিবসের কর্মসূচি শুরু হওয়ার দিন থেকে ২৭ এপ্রিল শুক্রবার পর্যন্ত ইসরায়েলি বাহিনীর স্নাইপারে ৪৫ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য