বিরল (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ বিরলে মসজিদ কমিটি দ্বারা পরিচালিত একটি গভীর নলকূপের কর্তৃত্ব নিয়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বাঁধতে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে। ঘটনায় থানায় অভিযোগ এবং প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

জানা গেছে, বিরল সদর ইউপি’র ঝাড়পুকুর গ্রামের একটি গভীর নলকূপ ঐ গ্রামের জামে মসজিদ কমিটি দ্বারা দীর্ঘদিন থেকে পরিচালিত হয়ে আসছিল। সম্প্রতি গভীর নলকূপটি মসজিদ গত পরিচালনা কমিটির সভাপতি আক্তারুজ্জাম, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল খালেক, কোষাধ্যক্ষ তৌহিদুল ইসলাম বাবু, সদস্য রহমত আলী নিজের বলে দাবী করায় মসজিদ কমিটি ও মুসুল্লিদের সাথে তাদের বিরোধ সৃষ্টি হয়।

এ ঘটনায় মসজিদ পরিচালনা কমিটির বর্তমান সভাপতি ও সদর ইউপি আওয়ামীলীগের আহবায়ক আলহাজ্ব আক্তার হোসেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে অভিযোগ দেন। ফলে ঘটনার বিষয় তদন্ত করতে ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি টিম গত মঙ্গলবার দুপুরে সরেজমিনে গেলে কর্তৃত্ব নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে বাক-বিতন্ডা ও উত্তেজনার সৃষ্টি হলে তদন্ত টিম ফিরে আসে।

এ ব্যাপারে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বর্তমান মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব আক্তার হোসেন বাদী হয়ে বিরল থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেছেন। একই সাথে মসজিদ পরিচালনা কমিটি ও মুসুল্লিরা বিরল প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের সাথে লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে তারা বলেন, গভীর নলকূপটি দীর্ঘদিন যাবত মসজিদ কমিটির মাধ্যমে পরিচালনা হয়ে আসছে। সেচ মৌসুমে গভীর নলকূপের লভ্যাংশ সর্ব সম্মতিক্রমে মসজিদের উন্নয়ন কাজে ব্যায় করা হয়ে থাকে। পরিচালনা কমিটি ও উপস্থিত মুসুল্লিরা জানান, পূর্ব কমিটির উল্লেখিত ব্যক্তিরা তদন্ত কমিটির সামনে আমাদের বিভিন্ন ভাবে হুমকিসহ বর্তমান সরকারের সমালোচনা করেন।

এঘটনায় উভয় পক্ষের মাঝে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বাঁধতে পারে। বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মজিদ জানান, মসজিদ পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য