আগুনে ভস্মীভূত অক্ষয় কুমারের আগামী ছবি ‘কেশরী’র শ্যুটিং সেট।বলিউড লাইফ সূত্রে খবর, মঙ্গলবার যুদ্ধের দৃশ্যের শ্যুটিং চলছিল। সেসময়ই ‘কেশরী’র সেটে আগুন ধরে যায়। তবে এই আগুন লাগার ঘটনায় কেউ জখম হয়নি।

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার মুম্বইয়ের ওয়াই এলাকায় ‘কেশরী’র শ্যুটিং চলছিল। যদিও এইদিন সিনেমার শ্যুটিং প্রায় শেষ করে সেখান থেকে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলেন অক্ষয়। তিনি বেরিয়ে যাওয়ার কিছুক্ষণ পরই সেখানে এই বিস্ফোরণ ঘটে এবং সেটে আগুন ধরে যায়।

পুরো শ্যুটিং সেটটিই ভস্মীভূত হয়ে গেছে বলে খবর। যদিও সিনেমার পরবর্তী শ্যুটিংয়ের দিন প্রযোজনা সংস্থার তরফে এখনও পরিবর্তন করা হয়নি। আগামী ১০ দিনের মধ্যে সেটটি ঠিক যেমন ছিল তেমনটাই নতুন করে বানাতে হবে। তাই এবিষয়ে বেশ চিন্তিত প্রযোজনা সংস্থার কর্মীরা।

১৮৯৭ সালে ‘সারগড়ীর যুদ্ধ’ -এর প্রেক্ষাপটে তৈরি এই সিনেমার নাম ‘কেশরী’। অক্ষয় ও করণ জোহরের স্বপ্নের এই প্রজেক্টে ‘কেশরী’তে আক্কিকে দেখা যাবে হাবিলদর ঈশ্বর সিং-এর চরিত্রে। এনিয়ে তৃতীয় বার কোনও শিখ চরিত্র দেখা যাবে বলিউডের খিলাড়িকে। এর আগে ‘সিং ইজ কিং’ এবং ‘সিং ইজ ব্লিং’ ফিল্ম।

ফিল্ম ‘কেশরী’র প্রেক্ষাপট ১৮৯৭ সালে ১২ সেপ্টেম্বর ঘটে যাওয়া ‘সারগড়ী’র যুদ্ধ’। যে যুদ্ধে আফগানিস্তান ওরাকজাই উপজাতির ১ হাজার সেনার সঙ্গে লড়াই করেছিল ব্রিটিশ ভারতীয় সেনাবাহিনীর মাত্র ২১ জন শিখ। যার নেতৃত্ব দিয়েছিলেন হাবিলদর ঈশ্বর সিং।

যুদ্ধটি হয়েছিল তৎকালীন খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের তিরাহ উপত্যাকায় যেটি বর্তামানে পাকিস্তানের নর্থ-ওয়েস্ট ফ্রন্টিয়ার প্রভিন্সের অন্তর্গত।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য