মাসুদ রানা পলক, ঠাকুরগাওঃ ব্রীজে কাজ করার সময় ইট ও মাটি চাপা পরে আমিনুল ইসলাম (৪৫) নামের এক মিস্ত্রির মৃত্যু হয়েছে। এসময় এক মহিলা শ্রমিকসহ আরো দুইজন শ্রমিক আহত হয়েছে।

এঘটনাটি ঘটেছে ঠাকুরগাও জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার সনগাঁও-দোগাছি সড়কের মশিউর মেম্বারের বাড়ীর সামনে ।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে,আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় আমিনুল মিস্ত্রিসহ ৮/১০ জন শ্রমিক পুরাতন ব্রীজ ভেংগে ও মাটি খুড়ে পুর্বের ইটগুলো তুলছিল।এ সময় উপরের মাটি ধসে আমিনুলসহ ৪/৫ জন মাটিতে চাপা পরে।

এ সময় স্থানীয় লোকজন ও শ্রমিকরা তাদের মাটি খুড়ে উদ্ধারের পর বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আমিনুলকে মৃত ঘোষনা করে।এ ঘটনায় অন্যান্য আহতদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঠাকুরগাও আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

নিহত আমিনুলের বাড়ী ঠাকুরগাও শহরের নিশ্চিন্তপুর গ্রামে।এসময় এ ঘটনায় অন্যান্য আহতরা হলো সনগাও গ্রামের আব্দুল আলী( ৪০) ও রশিদা বেগম(৩৫)।এদের মধ্যে রশিদা বেগম গুরুত্বর আহত।

স্থানীয় মালেক নামের এক ব্যক্তির অভিযোগ সেখানে কাজের তদারকীর জন্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের লোক থাকার কথা থাকলেও তা না থাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা প্রকৌশলী মাইনুল ইসলাম জানান,এ কাজটি ঠিকাদার ওয়ালিউর রহমান করছিলেন।এটি একটি ছোট বক্স কালভাটের কাজ। এখানে এরকম ঘটনা কেন ঘটলো তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ঘটনার পরেই বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল মান্নান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য