চীনের একটি নদীতে নৌকা বাইচের জন্য অনুশীলন করার সময় দুটি নৌকা উল্টে গিয়ে ১৭ জন ডুবে মারা গেছেন।

শনিবার চীনের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় গুয়াংশি ঝুয়াং স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের গুইলিন শহরের নিকটবর্তী একটি নদীতে ঘটনাটি ঘটেছে বলে রোববার জানিয়েছে সিনহুয়া।

টেলিভিশনে সম্প্রচারিত ছবির বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ড্রাগন বোট নামে পরিচিত একটি লম্বা, সরু নৌকা নদীর একটি প্রসারিত অংশে আসার পর সেটি উল্টে যায়।

নদীর ওই অংশটিতে প্রবল স্রোত ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে।

লোক ভর্তি আরেকটি ড্রাগন নৌকা ঘটনাস্থলে আসার পর সেটিও উল্টে যায়, সম্প্রচারিত ছবিগুলোতে এমনটিই দেখা গেছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

সিনহুয়া জানিয়েছে, দুই নৌকার ৫৭ জন আরোহী পানিতে পড়ে যায় এবং তাদের উদ্ধারে ২০০ জন উদ্ধারকর্মী পাঠানো হয়। গভীর রাত পর্যন্ত উদ্ধার কাজ অব্যাহত ছিল বলে জানা গেছে।

শেষ পর্যন্ত কতজনকে উদ্ধার করা হয়েছে এবং কতজন নিখোঁজ রয়েছেন, প্রকাশিত প্রতিবেদনগুলোতে সে সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু বলা হয়নি।

সিসিটিভির খবরে বলা হয়েছে, যেখানে নদীর দুটি ধারা মিলিত হয়ে প্রবল স্রোত তৈরি করেছে সেখানে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।

যারা পানিতে পড়ে গেছেন তাদের অধিকাংশেরই লাইফ জ্যাকেট ছিল না বলে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

দুর্ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুজনকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে সিনহুয়া।

এশিয়ার বিভিন্ন এলাকায় ড্রাগন নৌকার প্রতিযোগিতা বেশ জনপ্রিয়। ড্রাগন নৌকার উৎসবের দিনটি ঐতিহ্যগতভাবেই চীনের একটি ছুটির দিন। চলতি বছরের ১৮ জুন উৎসবটি হওয়ার কথা রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য