দিনাজপুরের বীরগঞ্জে হাস্কিং মিলের নৈশ্য প্রহরীকে বেধে রেখে ১১০বস্তা ধান লুট করে নিয়ে গেছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার রাত ২টায় উপজেলার সুজালপুর ইউনিয়নের জগদল বেইস মিতালী প্রশিক্ষণ কেন্দ্র সংলগ্ন দিয়া ট্রেডার্স হাস্কিং মিলে এ ঘটনা ঘটে।

মিলের মালিক মোঃ বায়েজিদ মিয়া জানান, বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক ২টায় একদল দুর্বৃত্ত মিলে প্রবেশ করে মোঃ তহিজ উদ্দিন (৬০) এবং মোঃ করিম উদ্দিন (৩২) নামে দুই নেশ্য প্রহরীকে জিম্মি করে। পরে তাদের হাত পা বেধে একটি ঘরে আটকে রেখে মিলের গোডাইনে রক্ষিত ১১০বস্তা জিরা (৩৪) জাতের ধান নিয়ে পালিয়ে যায়। শুক্রবার ভোরে জানতে পেরে তাৎক্ষণিক ভাবে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করা হয়।

সুজালপুর ইউনিয়নের জগদল খাজিন্দাপাড়া গ্রামের মৃত নজীর উদ্দিনের ছেলে মিলের নৈশ্য প্রহরী মোঃ তহিজ উদ্দিন জানান, রাত আনুমানিক ২টায় একদল লোক মিলে প্রবেশ করে প্রথমেই আমাদের দেশীয় অস্ত্র ঠেকিয়ে জিম্মি করে। পরে তারা আমাদের হাত পা বেধে একটি ঘরে আটকে রাখে।

এরপর মিলের গোডাইনের তালা ভেঙ্গে ঘরের রক্ষিত ধান নিয়ে পালিয়ে যায়। অনেক চেষ্টা ভোরে দাত দিয়ে হাতে বাধন খুলে ফেলি এবং প্রতিবেশিদের বিষয়টি জানাই। প্রতিবেশিদের সহযোগীতায় অপর নৈশ্য প্রহরী মোঃ করিম উদ্দিনকে মুক্ত করে মিল মালিকে বিষয়টি অবহিত করি।

ঘটনার পর সকাল ১০টায় ঘটনাস্থলে পরিদর্শনে আসেন বীরগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ সালাউদ্দিন, বীরগঞ্জ থানার ওসি সাকিলা পারভীন, দিনাজপুর ডিবি পুলিশের এসআই মোঃ বজলুর রশিদ, সুজালপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মহেশ চন্দ্র রায়।

এ ব্যাপারে বীরগঞ্জ থানার এসআই মোঃ দুলাল হক জানান, বিষয়টিকে বেশ গুরুত্ব দিয়ে পুলিশ মাঠে নেমেছে। থানায় এনে দুই নৈশ্য প্রহরীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। আমরা বেশকিছু সুত্র নিয়ে কাজ শুরু করেছি। খুব দ্রুত সময়ে এ ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার এবং চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধারে করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য