দিনাজপুরের বীরগঞ্জে বীরগঞ্জে মাইক্রোবাস চালকের চুরিকাঘাতে মোঃ আজিজুল ইসলাম আরজু (৩০) নামে অপর এক মাইক্রোবাস চালক আহত হয়েছে। এ ঘটনায় মোঃ তরিকুল ইসলাম (২৭) নামে এক যুবকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী ।

মোঃ আজিজুল ইসলাম আরজু উপজেলার শিবরামপুর ইউনিয়নের গাঙ্গর গ্রামের আব্দুল আউয়ালের ছেলে। পেশায় মাইক্রোবাস চালক। এবং আটক তরিকুল ইসলাম ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের হরিন্দা গ্রামের ফসিহার রহমানের ছেলে।

বীরগঞ্জ থানার এসআই মোঃ দুলাল হক জানান, বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার শিবরামপুর ইউনিয়নের সাহাডুবি গ্রামে চৈতু বর্মনের ছেলে গোবিন বর্মনের বিয়ের বরযাত্রী নিয়ে যাওয়ার জন্য মাইক্রোবাস নিয়ে উপস্থিত হয় মোঃ আজিজুল ইসলাম আরজু। পুর্ব শক্রতার জের ধরে দুইটি মটর সাইকেলে ৬যুবক তার পিছু নেয়। মোঃ আজিজুল ইসলাম আরজুকে পুর্ব পরিচিত মাইক্রোবাস চালক টিপু বিয়ে বাড়ী থেকে ডেকে একটি নির্জন এলাকায় নিয়ে এসে মারধর এবং ছুরিকাঘাত করে।

এতে সে আত্মরক্ষার্থে চিৎকার শুরু করলে বিয়ে বাড়ীর লোকজন ছুটে আসে। অবস্থা বেগতিক দেখে মটর সাইকেল ফেলে পালিয়ে যায় যুবকরা। এ সময় এলাকাবাসী ধাওয়া দিয়ে মোঃ তরিকুল ইসলাম নামে এক যুবককে আটক করে।

রক্তাক্ত অবস্থায় মোঃ আজিজুল ইসলাম আরজুকে উদ্ধার করে প্রথমে ঠাকুরগাঁও সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।

বীরগঞ্জ থানার ওসি সাকিলা পারভীন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় মোঃ তরিকুল ইসলাম নামে এক যুবক আটক রয়েছে। ঘটনাস্থল হতে দুইটি মটরসাইকেল জব্দ করা হয়েছে। আহত যুবকের পরিবার হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্ত থাকায় এখনো মামলা দায়ের করা সম্ভব হয়নি। তবে এ বিষয়ে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য