ঘটনার বিবরণে জানান হয়, দিনাজপুরে র‌্যাব-১৩ এর একটি আভিযানিক দল ইংরেজী ১৮ এপ্রিল ২০১৮ তারিখ মধ্য রাতে নীলফামারী জেলার সদর থানাধীন বড় সংগলশী শাহা পাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ভূয়া প্রশ্নপত্র ফাঁস সংক্রান্ত প্রতারনার সাথে জড়িত মোঃ খোকন শাহ (২০), পিতা- মোঃ আমিনুর রহমান, সাং-বড় সংগলশী, থানা-নীলফামারী সদর, জেলা-নীলফামারী’কে আটক করে।

উপরোক্ত আসামী বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে টাকার বিনিময়ে চলমান এইচএসসি পরীক্ষা-২০১৮ এর ভূয়া প্রশ্নপত্র বিতরণের নামে প্রতারণা করে আসছিল। ভূয়া প্রশ্নপত্র ফাঁস সংক্রান্ত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের একাধিক গ্রুপ, পেজের সক্রিয় সদস্যদের এ্যাডমিন হিসেবে সে দায়িত্ব পালন করত। সে বিভিন্ন লোকজনকে বিশেষ করে ছাত্র/ছাত্রীদেরকে প্রতারণার উদ্দেশ্যে প্রশ্নফাঁস এবং রেজাল্ট পরিবর্তনের আশ্বাস দিয়ে প্রলুব্দ করতো।

সে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হোয়াটস্অ্যাপ, মেসেঞ্জারসহ বিভিন্ন গ্রুপের মাধ্যমে যোগাযোগ করতো এবং বিকাশের মাধ্যমে প্রতারণার অর্থ লেনদেন করতো। র‌্যাব-১৩ এর আভিযানিক দলের কাছে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে তার কর্মকান্ডের কথা স্বীকার করে। আসামীকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

উপরোক্ত ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য