ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জাকিয়া বারী মম। দু’পর্দার দর্শকের মনে দাগ কাটেন তিনি। হুমায়ূন আহমেদ রচিত ও তৌকীর আহমেদ পরিচালিত ‘দারুচিনি দ্বীপ’ চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে বড় পর্দায় তার অভিষেক হয়। প্রথম ছবি দিয়ে দর্শকদের বাজিমাত করেন তিনি। তবে চলচ্চিত্রের দর্শকের কাছে দারুণ গ্রহণযোগ্যতার পরেও দীর্ঘদিন নতুন কোনো চলচিত্রে তিনি নেই। এ অভিনেত্রীর সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র হলো ‘ছুঁয়ে দিলে মন’।

শিহাব শাহীন পরিচালিত ছবিটি ২০১৫ সালে মুক্তি পায়। এই ছবিটিও দর্শকের মধ্যে দারুণ সাড়া ফেলে। মমও দর্শকের কাছে এই ছবিতে ভিন্নরূপে নিজেকে উপস্থাপন করেন। এদিকে তিন বছর পর আবারো বড় পর্দায় আসছেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। আগামি ২০শে এপ্রিল মুক্তি পাবে তার নতুন ছবি ‘আলতাবানু’। এটি নির্মাণ করেছেন অরুন চৌধুরী।

এই ছবিতে মম জুটি বেঁধেছেন জনপ্রিয় অভিনেতা আনিসুর রহমান মিলনের সঙ্গে। এর আগে মম ও মিলনকে দেখা গেছে ‘প্রেম করবো তোমার সাথে’ শিরোনামের একটি ছবিতে। এই জুটির হাতে রয়েছে তানিম রহমান অংশুর ‘স্বপ্নবাড়ি’ শিরোনামের আরও একটি ছবি। ‘আলতাবানু’ ছবির মধ্য দিয়ে দীর্ঘদিন পর বড় পর্দায় ফেরা নিয়ে মম দারুণ উচ্ছ্বসিত।

এ প্রসঙ্গে তার ভাষ্য, এই ছবির মধ্য দিয়ে দর্শক আমাকে আবারো বড় পর্দায় পাবে এটি আমার জন্য অনেক আনন্দের। আমি বলবোনা, এই ছবিতে আমাকে দর্শক নতুনভাবে দেখবে। তবে দর্শক যদি গল্পের মধ্য দিয়ে আমাকে নতুন ভাবে আবিষ্কার করতে পারে তাহলে অভিনেত্রী হিসেবে সেটি আমার জন্য বড় পাওয়া হবে বলে আমি মনে করি। নির্মাতা এই ছবির গল্প ও চিত্রায়ণে নতুনত্ব রেখেছেন, দর্শক ছবিটি দেখলে তা বুঝতে পারবেন।

আমি এখন অপেক্ষায় আছি দর্শক কেমন ভাবে ছবিটি গ্রহণ করেন। আলতা ও বানু নামের দুই বোনের জীবনের ঘটে যাওয়া নানা ঘটনা নিয়ে নির্মিত হয়েছে চলচ্চিত্র ‘আলতাবানু’। এটিতে আলতা চরিত্রে অভিনয় করছেন মম ও বানু চরিত্রে ফারজানা রিক্তা। ফরিদুর রেজা সাগরের গল্পে ‘আলতাবানু’র সংলাপ লিখেছেন বৃন্দাবন দাস। ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত এ চলচ্চিত্রে আরও অভিনয় করেছেন রাইসুল ইসলাম আসাদ, দিলারা জামান, মামুনুর রশীদ প্রমুখ।

দেশীয় চলচ্চিত্রের বাইরে বলিউডের একটি চলচ্চিত্রেও অচিরেই অভিনয় করবেন এই অভিনেত্রী। বলিউডের নির্মাতা ফয়সাল সাইফের নাম চূড়ান্ত না হওয়া একটি চলচ্চিত্রে মম চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। মম এখন ছোট পর্দার কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার হচ্ছে তার অভিনীত রহমতুল্লাহ তুহীনের ‘যখন কখনো’, নজরুল ইসলাম বাবুর ‘ঘরে বাইরে’, শিহাব শাহীনের ‘লিপিষ্টিক’ শীর্ষক ধারাবাহিকগুলো।

ধারাবাহিকের বাইরে বিশেষ দিবসের নাটক-টেলিছবিতেও কাজ করছেন বলে জানান তিনি। ছোট পর্দার কাজ নিয়ে মম বলেন, আমি পেশাদার অভিনেত্রী। প্রতিদিনই ছোট পর্দার জন্য কাজ করি। তবে ছোট পর্দাার সব কাজ আমার জন্য স্পেশাল নয়। পেশার খাতিরেই আমাকে অনেক কাজ করতে হচ্ছে। আসছে ঈদের জন্য বিশেষ কিছু কাজ করবো। যেগুলোতে দর্শক আমার বিশেষ কিছু দেখতে পাবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য