মালিতে ফরাসি ও জাতিসংঘের সৈন্যদের ওপর রকেট ও গাড়ি বোমা হামলায় এক শান্তিরক্ষী নিহত ও বহু লোক আহত হয়েছেন।

হামলাকারী জঙ্গিরা জাতিসংঘ বাহিনীর বৈশিষ্ট্যসূচক নীল হেলমেট ও জাতিসংঘের লোগো যুক্ত গাড়ি চালিয়ে এসে টিম্বুকটুর বিমানবন্দরের নিকটবর্তী দুটি ঘাঁটিতে হামলা চালায় বলে জানিয়েছে বিবিসি।

এসব হামলায় তাদের এক শান্তিরক্ষী নিহত হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছে মালির জাতিসংঘ মিশন।

মালি সরকারের দেওয়া তথ্যানুযায়ী, হামলায় অনেক ফরাসি সেনাসহ বহু রক্ষী আহত হয়েছেন।

এক বিবৃতিতে দেশটির নিরাপত্তা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ‘নীল হেলমেট পরা’ জঙ্গিরা বহু রকেট নিক্ষেপ করেছে। তাদের আনা দুটি গাড়ি বিস্ফোরকে ভরা ছিল।

এরমধ্যে একটি গাড়ির বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে ও জাতিসংঘের প্রতীক সম্বলিত অপরটি থামানো হয়েছে।

আহতদের মধ্যে পাঁচ জনের অবস্থা গুরুতর। দুপক্ষের লড়াই শেষ হয়েছে এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে বলে বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

মালিতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনী ও সরকারি বাহিনীগুলোর ওপর প্রায়ই হামলা হয়ে থাকে। ফ্রান্সের এই সাবেক উপনিবেশটিতে দেশটির সামরিক উপস্থিতিও আছে।

তবে টিম্বুকটুতে এবার যে হামলাটি চালানো হয়েছে তা ‘নজিরবিহীন’ বলে আন্তর্জাতিক এক বার্তা সংস্থাকে জানিয়েছেন বিদেশি এক নিরাপত্তা সূত্র।

টিম্বুকটু গভর্নোরেটের এক কর্মকর্তা বলেছেন, “এ ধরনের হামলা আমরা আগে কখনো দেখিনি।”

তুয়ারেগ বিচ্ছিন্নতাবাদীদের অভ্যুত্থানের সময় ২০১৩ সালে মালিতে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী মোতায়েন করা হয়। জাতিসংঘের সবচেয়ে বিপজ্জনক শান্তি মিশনগুলোর মধ্যে অন্যতম হিসেবে বিবেচিত এই মিশনটিতে ১১ হাজার সেনা ও ১,৭৪১ জন পুলিশে মোতায়েন আছে।

শনিবারের রকেট ও গাড়িবোমা হামলার আগে মালির মিশন শুরু হওয়ার পর পরবর্তী পাঁচ বছরে ১৬২ জন শান্তিরক্ষী নিহত হয়েছিল।

চলতি বছর এ পর্যন্ত সাত জন শান্তিরক্ষী নিহত হয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য