দিনাজপুর সংবাদাতাঃ জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বলেছেন, শরিফুল আহসান লাল ছিলেন আওয়ামীলীগের একজন পরীক্ষিত কর্মী ও নেতা। জীবনের শেষ মুহুর্ত পর্যন্ত তিনি ছিলেন দলের জন্য নিবেদিতপ্রাণ। তার মৃত্যুতে আওয়ামীলীগের অপুরণীয় ক্ষতি হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

১৩ এপ্রিল শুক্রবার হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বিকেলে মরহুম শরিফুল আহসান লাল-এর স্বরনে কুলখানী ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।

হুইপ বলেন, সৎ ও নিষ্ঠাবান রাজনীবিদ ছাড়া দেশের কল্যান সম্ভব নয়। রাজনীতিবিদরা যত সৎ ও নিষ্ঠাবান হবে দেশ ততই এগিয়ে যাবে। এ প্রসঙ্গে তিনি বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নাম উল্লেখ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লোভ-লালসার উর্দ্ধে থেকে সততা ও নিষ্ঠার সাথে দেশ পরিচালনা করছেন বলেই বাংলাদেশ আজ নিম্ন আয়ের দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে পরিনত হয়েছে। উন্নয়নের এই ধারাকে অব্যাহত রাখতে আগামীতে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারকে আবার ক্ষমতায় রাখার জন্য সকলকে কাজ করে যাওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি বলেন, বিগত সরকারের আমলে রাজনীতিবিদরা লুটপাট চালিয়েছিলো বলেই দেশের অগ্রযাত্রা ব্যহত হয়েছিলো। বিদ্যুতের উন্নয়নের নামে খাম্বা বানিয়ে নিজেদের উন্নয়ন করেছে। ফলে মানুষ বিদ্যুৎ পায়নি। বর্তমান সরকার সততা ও নিষ্ঠার সাথে বিদ্যুতের উন্নয়নের কাজ করার ফলেই ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌছে গেছে। এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক দিনাজপুর সদর উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধনের কথা উল্লেখ করেন হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আজিজুল ইমাম চৌধুরী, সহ-সভাপতি এ্যাড, আব্দুল লতিফ, মোঃ আলাউদ্দীন, ফারুকুজ্জামান চৌধুরী মাইকেল, আতাউর রহমান আযাদ বাবলু, শহর আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক খাকেুজ্জামান রাজু, কোতয়ালী আওয়ামীলীগের সভাপতি ইমদাদ সরকার, সাধারন সম্পাদক বিশ্বজিৎ ঘোষ কাঞ্চন, দিনাজপুর চেম্বারের সাবেক সভাপতি রফিকুল ইসলাম, দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিরি সাধারন সম্পাদক মোঃ তহিদুল হক সরকার, দিনাজপুর ডায়াবেটিস সমিতির সাধারন সম্পাদক শফিকুল হক ছুটু, জেলা যুবলীগের সভাপতি এ্যাড. দেলোয়ার হোসেন, কৃষকলীগের সভাপতি মাহতাব সরকার, জাতীয় পাার্টি নেতা মোঃ রবিউল ইসলাম, শফিক আহমেদ, দৈনিক উত্তরবাংলার সম্পাদক মোঃ মতিউর রহমানসহ সর্বস্তরের মানুষ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য