ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে পহেলা বৈশাককে সামনে রেখে বৃদ্ধি পেয়েছে ইলিশ মাছের দাম। একই প্রভাব পড়েছে দেশি মাছ, মুরী ও সবজির বাজারেও।

আজ শুক্রবার পৌর বাজারে গিয়ে দেখা যায়, প্রতিকেজি ইলিশ মাছ বিক্রি হয়েছে ১ হাজার ৫শ টাকা দরে। অথচ কয়েক দিন পুর্বে প্রতি কেজি ইলিশ মাছ বিক্রি হয়েছে ৮শ টাকা খেতে ১ হাজার টাকা কেজি দরে। একই অবস্থা দেশি প্রজাতীর মাছ। রুই কাতলা মাছ কয়েক দিন পুর্বে প্রতি কেজি ২শ থেতে ৩শ টাকা দরে বিক্রি হলেও, গতকাল শুক্রবার বিক্রি হয়েছে ৪শ থেকে ৫শ টাকা দরে।

এদিকে মাছের বাজারের সাথে তাল মিলিয়ে মুরগীর দাম প্রতি কেজিতে বৃদ্ধি পেয়েছে ২০ টাকা থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত।

ইঁলিশ মাছ বিক্রেতা সাগর ও হাবিবুর বলেন মাছের পাইকারী বাজারে ইলিশের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায়, তাদেরকে বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে। মুরগী ব্যবসায়ী জাহাঙ্গির আলম বলেন বৈশাখকে সামনে রেখে খামার মালিকেরা মুরগীর দাম বৃদ্ধি করেছে। একই ভাবে শাক-সবজির দামও বৃদ্ধি পেয়েছে।

জানা গেছে সরকারী চাকুরী জিবীদের বেতনের ২০ ভাগ টাকা বৈশাখী ভাতা প্রদান করায় এর প্রভাব পড়েছে নিত্যপন্যর বাজারে। এতে বৈশাককে সামনে রেখে প্রতিটির নিত্যপন্যর দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে বিপাকে পড়েছে সাধারন খেটে খাওয়া মানুষ ও কৃষক পরিবার গুলো।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য